মতিয়া-ফখরুলের মুখোমুখি দেখা

Loading...

ঘড়ির কাঁটায় সন্ধ্যা পৌনে সাতটা। বেসরকারি টেলিভিশন বাংলাভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান থেকে বের হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। একইসময়ে সেখানে প্রবেশ করছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

কৃষিমন্ত্রী আছেন শুনে মহাসচিব এগিয়ে গেলেন তার কাছে। খানিকক্ষণ একসঙ্গে কাটালেন দুই জন।

রাজনীতির ময়দানে পরস্পরের বিরুদ্ধে ক্রমাগত বক্তব্য দিয়ে বিরোধিতার আবেশ জিইয়ে রাখা দুই দলের নেতার এই দেখা হওয়ার সময়টা ছিল বন্ধুবৎসল। এ সময় তারা একে অপরের প্রতি শুভ কামনা জানান, খোঁজ নেন স্বাস্থ্যের। সব মিলিয়ে দুই নেতার মধ্যে কথোপকথন হয় দেড় থেকে দুই মিনিট। এই দৃশ্য দেখে বাংলাভিশনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানাতে আসা অন্য অতিথিরাও চমৎকৃত হন।

শনিবার (৩১ মার্চ) সন্ধ্যায় রাজধানীর বীর উত্তম সি আর দত্ত রোডের নূর টাওয়ারে বেসরকারি টেলিভিশনটির প্রধান কার্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে।

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বাংলাভিশনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বের হয়ে যাচ্ছিলেন। ঠিক ওই মুহূর্তে মির্জা ফখরুল বাংলাভিশনের চেয়ারম্যান আব্দুল হকের কক্ষের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় মতিয়া চৌধুরী আছেন শুনে পথ পাল্টে তার সঙ্গে দেখা করতে এগিয়ে যান ফখরুল। বলেন, ‘যাই সালাম দিয়ে আসি।’

তখন ১২ তলায় শুভেচ্ছা মঞ্চের সামনে ছিলেন মতিয়া চৌধুরী। কাছে এসেই হাত তুলে তাকে সালাম দেন ফখরুল। সালামের জবাব দিয়ে মতিয়া বলেন, ‘সালাম তো আমার দেয়া উচিত ছিল’। এ সময় তারা দু’জনসহ তাদের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা অন্যরাও হেসে উঠেন।

ফখরুলকে মতিয়া বলেন, ‘আপনার শরীর ভালো?’।

‘ভালো আছি, আপনি ভালো তো?’ জবাব দেন ফখরুল।

এরপরে দুজন পরস্পরকে শুভ কামনা জানিয়ে বিদায় নেন। পরে মির্জা ফখরুল বাংলাভিশনের চেয়ারম্যানসহ চ্যানেলটির কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে বিদায় নেন।

Be the first to comment on "মতিয়া-ফখরুলের মুখোমুখি দেখা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*