খেলাধুলা

এ বছর কোন টেস্ট নয় , ২০১৯ সালে খেলবে টি-টুয়েন্টি

বাংলাদেশের সাথে সিরিজ বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। তারা এই সিরিজে আর্থিকভাবে লাভবান হবে না বলে আশঙ্কা জানিয়ে এ সিরিজ বাতিল করেছে। চলতি বছরের আগস্ট-সেপ্টেম্বরে দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডের এ সিরিজ হওয়ার কথা ছিল।

ইতিমধ্যে ক্রিকেট অষ্ট্রেলিয়া (সিএ) বিসিবিকে জানিয়েছে, এই সিরিজের পরিবর্তে আগামী ২০১৯ সালে হোমগ্রাউন্ডে টাইগারদের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে চায় অস্ট্রেলিয়া। এ সর্ম্পকে দুই বোর্ড আলোচনাধীন অবস্থায় রয়েছে।

আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপের মধ্যে সিরিজটি সম্প্রচারের জন্য আগ্রহী নয় টিভি সম্প্রচারকরাও।তাই তা বাতিল করেছে সিএ।এতে নাকি সম্মতি আছে বিসিবিরও। এদিকে
বাংলাদেশ দল খেলতে গেলে খেলা হতো উত্তর অস্ট্রেলিয়ায়। ঐতিহাসিকভাবেই আগস্ট-সেপ্টেম্বরে সেখানে টেস্টে দর্শক পাওয়া যায় কম।

তবে সফরকারীদের একেবারে বঞ্চিত করতে চাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া। তাই আগামী বছর টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার প্রস্তাব দিয়েছে তারা। এটি ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টও হতে পারে।

অবশ্য এর নেপথ্যে লুকিয়ে আছে ক্যাঙ্গারুদের স্বীয় স্বার্থ। ২০২০ সালে তাদের মাটিতেই হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এর প্রস্তুতি হিসেবে সেই সিরিজটি খেলতে চায় তারা। কারণ দেখিয়ে বলা হয়েছে, এখানে খেললে বিশ্ব আসরের আগে অস্ট্রেলীয় কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে পারবেন লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়া সফর করে বাংলাদেশ। সেটিই প্রথম ও শেষ সফর। একের পর এক কাদা ছোড়াছুড়ি করে গেল বছর বাংলাদেশে এসে দুই টেস্ট সিরিজ খেলে গেছে অস্ট্রেলিয়া। নিরাপত্তা শঙ্কায় সেই সিরিজ ঝুলিয়ে রেখেছিল অজিরা। শেষে আলোর মুখ দেখলে তা ১-১ ব্যবধানে ড্র হয়।