খেলাধুলা

যে কারণে আফগানিস্তানকে ভয় পাচ্ছেন না সাব্বির

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের চেয়ে দুই ধাপ এগিয়ে আফগানিস্তান। স্বাভাবিকভাবেই তাই তাদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার আগে সতর্ক বাংলাদেশ। সতর্ক বাংলাদেশ দলের অন্যতম সদস্য সাব্বির রহমান। কিন্তু এই সতর্কতাকে ভয় হিসেবে মানতে নারাজ তিনি।

সাব্বির রহমান বরং মনে করেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সদ্যই নতুন শক্তি হিসেবে দাঁড়াতে থাকা আফগানিস্তানকে ভয়ের কিছু নেই। কারণ বাংলাদেশ তাদের তুলনায় অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে।

আফগানিস্তান সিরিজ সামনে রেখে চলছে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। প্রাথমিক দলের অনুশীলনের মধ্যেই ঘোষণা করা হবে এই সিরিজের দল। তার আগে শনিবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হলেন সাব্বির। এ সময় প্রতিপক্ষ হিসেবে আফগানিস্তানকে মূল্যায়ন করেন তিনি।

সাব্বির বলেন, ‘আফগানিস্তানের দুই তিনজন বিশ্বমানের খেলোয়াড় আছে। কিন্তু ওদের তুলনায় আমাদের অভিজ্ঞতা বেশি। আমাদেরও দুজন ক্রিকেটার নিয়মিত আইপিএল খেলে। আমার বিশ্বাস, অভিজ্ঞতার কারণেই আমরা ওদের চেয়ে এগিয়ে থাকবো।’

তাই বলে আফগানিস্তানকে ছোট করে দেখেননি সাব্বির। তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি এমন এক ফরম্যাট, যেখানে ছোট দল বা বড় দল বলে কিছু নেই। ওদের দলে বিশ্বমানের কয়েকজন ক্রিকেটার আছে। আমাদের আছে অভিজ্ঞতা। সব মিলিয়ে সিরিজটি উপভোগ্য হয়ে উঠবে বলেই মনে করি।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের এই সিরিজে বাংলাদেশের ফলাফল কেমন হবে, তার অনেকটাই নির্ভর করে সাব্বির রহমানের উপর। কারণ এই ফরম্যাটে তিনি বাংলাদেশ দলের অন্যতম ভরসা। সেটা জানেন সাব্বিরও। আফগানিস্তানের বিপক্ষে তাই নিজের বিশেষ লক্ষ্যও নির্ধারণ করেছেন তিনি।

সাব্বির বলেন, ‘আমি একজন ব্যাটসম্যান। সুতরাং আমি চাইবো দলের যাতে কাজে লাগে, এমন ইনিংস খেলতে। আফগানিস্তানের বিপক্ষেও এর ব্যতিক্রম নয়। আমি যাতে খুব বেশি রান করতে পারি, লক্ষ্য থাকবে এটাই।’

গত দুই বছরে ১৪টি টি-টোয়েন্টি খেলে ১১টিই হেরেছেন সাকিব আল হাসান-সাব্বির রহমানরা। পক্ষান্তরে একই সময়ে ১৫ টি-টোয়েন্টি খেলে আফগানিস্তান জিতেছে ১২টি! এমন একটা দলের বিপক্ষে শুধু সাব্বির রহমান নন, ভালো খেলতে হবে পুরো বাংলাদেশ দলকেই। অনুশীলনে সবার বাড়তি মনোযোগ প্রমাণ করে, বিষয়টি বাংলাদেশের ভালো করেই জানা আছে।