খেলাধুলা

চোট নিয়ে মুখ খুললেন সালাহ

স্পোর্টস ডেস্ক: মোহাম্মদ সালাহ। রাশিয়া বিশ্বকাপে মিসরের ভরসা। কান্নাভেজা চোখে তাঁর মাঠ ছাড়ার দৃশ্যটা মনে আছে? সেই যে ২৬ মে কিয়েভে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল। সার্জিও রামোসের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে কাঁধে চোট পেলেন মোহাম্মদ সালাহ।

ম্যাচের প্রায় আধঘণ্টার মাথায় কাঁদতে কাঁদতে মাঠ ছেড়েছিলেন লিভারপুলের মিসরীয় এই ফরোয়ার্ড। সেই আঘাত সালাহর বিশ্বকাপে খেলাকেই শঙ্কার মধ্যে ফেলে দিয়েছিল। প্রথমবারের মতো সেই চোট নিয়ে মুখ খুললেন মিসরীয় তারকা।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’কে সালাহ বলেছেন, ‘ফাইনালে মাঠ ছেড়ে যাওয়া আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে মুহূর্ত।’ সেদিন সালাহর কান্নাই বলে দিয়েছে ক্যারিয়ারে এর আগে কখনো এমন নির্মম মুহূর্তের সম্মুখীন হননি। সালাহকে ছাড়া লিভারপুলও ফাইনালে রিয়াল মাদ্রিদের সামনে দাঁড়াতে পারেনি। স্প্যানিশ ক্লাবটির কাছে ৩-১ গোলে হেরেছিল অলরেডরা।

লিভারপুলের হারের চেয়ে মিসরীয়দের কাছে সেদিন সবচেয়ে বড় শঙ্কা হয়ে এসেছিল সালাহর চোট। রাশিয়া বিশ্বকাপে তাঁর খেলা নিয়েই প্রশ্ন উঠেছিল। শুরুতে জানা গিয়েছিল, বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে বড়জোর মিসরের শেষ ম্যাচটা খেলতে পারবেন সালাহ। মিসরের কোচ হেক্টর কুপার অবশ্য বিশ্বকাপের শুরু থেকেই সালাহকে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।

বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার ভয়টা কিন্তু শুধু সালাহর ভক্তরা পায়নি। এই ভয়টা সালাহর মধ্যেই সবচেয়ে বেশি ছিল। ২৫ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ‘ভাবতে শুরু করেছিলাম, বিশ্বকাপে হয়তো খেলতে পারব না। এটা ছিল ভয়ানক ব্যাপার।’

১৫ জুন উরুগুয়ের মুখোমুখি হয়ে বিশ্বকাপ শুরু করবে মিসর। ‘এ’ গ্রুপে তাঁদের বাকি দুই প্রতিদ্বন্দ্বী দল রাশিয়া ও সৌদি আরব।