খেলাধুলা

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৮ রানের জয় তুলে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ দল

৯ বছর পর দেশের বাইরে কোন দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জয়লাভ করলো বাংলাদেশ দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডে ম্যাচে ১৮ রানের জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ দল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডে ম্যাচের শুরুতেই টস জিতে ব্যাটিংয়ের নেমে দিন ভালো শুরু করতে পারেনি বাংলাদেশ দল। ধীর গতিতে আনামুল হক বিজয় এবং তামিম ইকবাল করেন ৩৫ রানের জুটি। অনেকটা বেশি বল খরচ করে ১০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আনামুল হক বিজয়।

তবে এরপর সেই সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবাল আবারো প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। ৮১ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন এই দুইজন। ৩৭ রান করে আউট হন সাকিব আল হাসান। দলীয় ১৫২ রানের মাথায় ১২ রান করে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান মুশফিকুর রহিম।

তবে অন্য প্রান্ত থেকে ক্যারিয়ারের ১১ তম সেঞ্চুরি তুলে নেন তামিম ইকবাল। ১২০ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। তবে সেঞ্চুরি করেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তামিম ইকবাল। দলীয় ২০০ রানের মাথায় ১০৩ রান করে আউট হন তামিম। তবে এদের চমক দেখালেন মাশরাফি বিন মুর্তজা।

সাব্বির রহমান, সৈকতকে রেখে ব্যাটিংয়ে নেমে দারুন করেন তিনি। ব্যাটিংয়ে নেমে ২৬ বলে ৩৬ রান করে আউট হন তিনি। তবে অন্য প্রান্ত থেকে দারুণ খেলতে থাকা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৪৪ বলে ক্যারিয়ারের ১৯ তম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন। শেষ পর্যন্ত মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ৪৯ বলে ৬৭ রানে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৩০১ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ দল।

৩০২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে এদিন দারুণ শুরু করে দুই ওপেনার ইভিন লুইস এবং ক্রিস গেইল। দুজন মিলে ওপেনিং জুটিতে যোগ করেন ৫৩ রান। ইভিন লুইসকে টানা তিন ম্যাচে আউট করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে এর পরে বিধ্বংসী রূপ ধারণ করেন ক্রিস গেইল।

দলীয় ১০৫ রানের মাথায় ৬৬ বলে ৭৩ রান করা ক্রিস গেইলকে নিজের দ্বিতীয় ওভারেই আউট করেন রুবেল হোসেন। গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান শিমরন হ্যাটমিয়ার শাই হোপকে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু তাদেরকে বেশিদূর এগোতে দেয়নি মেহেদী হাসান মিরাজ।

৩০ রান করা শিমরন হ্যাটমিয়ারকে আউট করেন মিরাজ। এরপর পাওয়েলকে রান আউট করে বাংলাদেশ। দলীয় ২২৪ রানের মাথায় ৬৪ রান করা শাই হোপকে আউট করলেও গলার কাঁটা হয়ে ওঠেন রভম্যান পাওয়েল। মাত্র ২৪ বলে ফিফটি তুলে নেন তিনি।

শেষ তিন ওভারে জয়ের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রয়োজন ৪০ রানের। বোলিংয়ে এসে প্রথম বলেই জেসন হোল্ডার কে ৯ রানে আউট করেন মুস্তাফিজুর রহমান। শেষ দুই ওভারে তখন প্রয়োজন ৩৪ রানের। কিন্তু ৪৯ তম ওভারে এসে মাত্র ৬ রান দেন রুবেল হোসেন। বাংলাদেশ ম্যাচে জয়লাভ করে ১৮ রানে।