অন্যান

এরপরও কি বিসিবি বলবে মুমিনুল ওয়ানডের যোগ্য নয়?

স্পোর্টস ডেস্কঃ ২০১২ সালে ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছিল মুমিনুল হকের। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ওয়েষ্টইন্ডিজের বিপক্ষে ছিল অভিষেক ম্যাচ। এরপর আবার ওয়ানডেতে তার শেষটাও হয়ে গেছে। সেটাও আবার ৩ বছর আগেই। ২০১৫ সালে মেলবোর্নে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে ম্যাচটি খেলেফেলেছেন মুমিনুল।

মাঝের এই সময়ে ২৬টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। তার ব্যাটিং গড় ২৩ এর একটু উপরে। বাংলাদেশের এই তারকাকে বিসিবি তখনই টেষ্টের খেলোয়ার হিসেবেই অঘোষিত ঘোষনা করে দেয়।

এখন বাংলাদেশের টেষ্ট ম্যাচ মানেই মুমিনুল থাকবে। বাকি সময়টা জাতীয় দলে থাকবে না সে। অথচ ওয়ানডেতেও যথেষ্ট সম্ভাবনাময় তারকাই ছিলেন এই ছোট দেহের মুমিনুল।

বিসিবি তাকে ওয়ানডে থেকে একরকম ব্রাত্য ঘোষনার পর এমন অনেক ম্যাচ খেলেছেন মুমিনুল যেখানে জাতীয় দলের তারকারাও তার কাছে নস্যি। কিন্তু ঐযে টেষ্টের তারকা তকমা গায়ে জড়িয়ে যাওয়ায় আর ফেরা হয়নি ওয়ানডেতে।

এবার আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ এ দলের হয়ে সফরে গিয়েছেন মুমিনুল। আর আজকে চতুর্থ ম্যাচে খেললেন ১৮২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। রান আউট না হলে হয়তো ডাবল সেঞ্চুরীটাও হয়ে যেত। তার ব্যাটে ভর করেই ৩৮৫ রানের বড় সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

ঘরোয়া ক্রিকেটেও নিয়মিত রান পাচ্ছে মুমিনুল। তারপরও জাতীয় দলে টেষ্ট তারকার তকমা তার। এবার কি তার সেই তকমা পাল্টাবে?