খেলাধুলা

মেসি-পগবার জুটি নিয়ে চিন্তায় রোনালদো

স্পোর্টস ডেস্ক: ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে খুব একটা ভালো নেই পল পগবা। কোচ হোসে মরিনহোর সাথে তার দূরত্ব দিন দিন বেড়েই চলছে। ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী দলের এই সদস্যের সাম্প্রতিক কথাবার্তায় তা আরো স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। আর কোচের সাথে পগবার এই দূরত্বকে কাজে লাগিয়ে এই ফরাসিকেও জুভেন্তাসে ভেড়াতে চাইছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সেই লক্ষ্যে নাকি জুভি কর্তাদের ফুসলাচ্ছেন পর্তুগিজ এই তারকা।

বিশ্বকাপ চলাকালীন রিয়ালের সাথে ৯ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে ইতালিতে পাড়ি জমিয়েছেন রোনালদো। তার এই দুনিয়া কাঁপানো ট্রান্সফারকে বলা হচ্ছে ‘ট্রান্সফার অব দ্য সেঞ্চুরি’। নতুন ক্লাবে যোগ দিয়েই নিজের দলকে ভারী করতে চাইছেন ৩৩ বছর বয়সী এই সুপারস্টার। বিশেষ করে চির প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির বার্সেলোনার সাথে টেক্কা দেওয়ার প্রতিযোগিতায় নেমেছেন তিনি। কারণ পগবাকে দীর্ঘদিন ধরেই দলে টানার চেষ্টা করছে কাতালান ক্লাবটিও।

ইউরোপিয়ান ফুটবলের দলবদলের পালা শেষ হয়ে গেছে আগেই। কিন্তু ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ইংলিশ ক্লাব থেকে খেলোয়াড় কেনা যাবে। এই সুযোগটাই কাজে লাগাতে চাচ্ছেন রোনালদো। তার ভয়, পগবার অসন্তোষকে কাজে লাগিয়ে যদি বার্সা তাকে কিনে নেয়, তবে মেসি-পগবার জুটি আটকানো মুশকিল হয়ে যাবে। তাই মেসি-পগবার যুগলবন্দী ঠেকাতে জুভেন্তাসের কর্তাদের ফুসলাচ্ছেন রোনালদো, যাতে করে তারা পগবাকে কেনার উদ্যোগ নেয়।

তবে সেই চেষ্টা কতটুকু সাফল্যের মুখ দেখবে তা সময়ই বলে দেবে। কারণ ওল্ড ট্রাফোর্ডে অশান্তি থাকলেও দল ছাড়ার বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলেননি পগবা। এদিকে পগবার বিষয়ে কয়েকটি ক্লাবের আগ্রহ দেখে ম্যানইউ সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ফরাসি এই তারকাকে ধরে রাখতে বদ্ধ পরিকর তারা।

এর আগে ম্যানইউতে কেমন চলছে—এমন প্রশ্নের জবাবে ২৫ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার বলেছিলেন, ‘এমন অনেক বিষয় আছে যা আমি বলতে পারি, আবার এমন অনেক বিষয় আছে যা আমি বলতে পারি না। যদি বলি, তবে আমার জরিমানা হবে। যখন আপনার ওপর মানুষের বিশ্বাস ও আত্মবিশ্বাস থাকে, তখন আপনার মাথা ভালো থাকবে। কাজটাও সহজ হয়ে যাবে।’