খেলাধুলা

বাংলাদেশ দলের ওপেনার তামিম ইকবাল।

দেখুন, ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে অনেকে অনেক ধরনের কথা বলে। আপনি দুনিয়ার সব সুযোগ সুবিধা দিতে পারেন, কিন্তু প্লেয়ারদের মধ্যে যদি চ্যালেঞ্জটা না থাকে তাহলে কিন্তু কোন লাভ নেই। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো নিজেদের মধ্যে চ্যালেঞ্জ থাকাটা। ভালো করার স্পৃহাটা থাকতে হবে। বোলিংয়ের কথা যদি বলি, বোলারদের লম্বা স্পেল খেলার চেষ্টা করতে হবে। এটা নিজের সাথে নিজের চ্যালেঞ্জ, কি আমার পক্ষে আছে আর কি আমার পক্ষে নেই এইসব না ভেবে ভালো করার চেষ্টা করা উচিত।’ বলছিলেন বাংলাদেশ দলের ওপেনার তামিম ইকবাল।

মিরপুর স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি আরো বলেন, ‘উদাহরণ হিসেবে আমাদের প্রথম টেস্টের কথাই ধরুন, আমরা তো সেখানে গিয়ে তর্ক করতে পারি না যে আমাদের ফ্ল্যাট উইকেট দেন। কন্ডিশন যেটা ছিল সেটাকে আমাদের চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেয়া উচিত ছিল সেটা আমরা নিতে পারি নি। এমন অনেক টেস্ট সিরিজ আছে যেখানে আমরা ভালো করেছি, চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে ভালো করেছি। ঘরোয়া ক্রিকেটেও একই কথা, চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিতে হবে।’

চ্যালেঞ্জ নিতে পারলে সব সম্ভব মনে করেন এ টাইগার। তিনি বলেন, ‘১০ জন গড়পড়তা চিন্তা করলে আপনাকে আলাদা চিন্তা করতে হবে। ভাবতে হবে, এই ফরম্যাটে এই উইকেটে আমি নিজেকে কিভাবে ভালো করতে পারি। ব্যক্তি যদি নিজে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নেয় তাহলে সহজ হয়ে যাবে। বোর্ডের তরফ থেকে যা দেয়া দরকার তারা দিচ্ছে। এরচেয়ে বেশি আর কি আশা করতে পারি।’

বোর্ড সব কিছু দিচ্ছে উল্লেখ্য করে তামিম আরো বলেন, ‘বোর্ক একটা ভালো মাঠ দিচ্ছে, উইকেট দিচ্ছে, সব সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে … এরচেয়ে বেশি তো আর তারা দিতে পারে না। তারা তো আমাদের হাত ধরে খেলিয়ে দিতে পারবে না। আমাদের নিজেদের দায়িত্ব হলো ওই অবস্থা থেকে আমাদের নিজেদের জন্য ভালো পারফর্মেন্সটা বের করে নিয়ে আসা।