খেলাধুলা

সামান্য ভুলের কারণে কেড়ে নেয়া হয় তার সেই পদক

পদক জয়ের আনন্দে পুরো ভারত উদ্বেলিত হয়ে উঠেছিল। ১০ হাজার মিটারের দূর পাল্লার দৌড়ে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন ভারতীয় অ্যাথলেট গোবিন্দন লক্ষ্মণ। জাকার্তা থেকে এশিয়ান গেমসে পদক জয়ের খবরে আনেন্দর ঢেউ বয়ে যায় পুরো ভারতেই; কিন্তু সেই আনন্দ নিমিষে বিষাদে রূপ নিতে সময় লাগেনি। সামান্য ভুলের কারণে কেড়ে নেয়া হয় তার সেই পদক। সামান্য ভুলে কেড়ে নেয়া হয় ভারতীয় অ্যাথলেটের পদক।

ব্রোঞ্জ পদক জয়ের কারণে এশিয়ান গেমস অ্যাথলেটিক্সে ভারতের হয়ে দু’দশকের খরা কাটানোর সুখবর দিয়েছিলেন গোবিন্দন। কিন্তু ২৪ ল্যাপের দীর্ঘ পরিক্রমায় একবার মাত্র ট্র্যাকের বাইরে পা ফেলার অপরাধে দৌড় থেকে বাতিল করা হয় ভারতীয় অ্যাথলেটকে।

১৯৯৮ সালে ব্যাংকক এশিয়ান গেমসে ভারতের গুলাব চাঁদ ১০ হাজার মিটারে ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন। সে থেকে গত দুই দশক এই ইভেন্টে ভারত কখনও আর সাফল্য পায়নি। স্বাভাবিকভাবেই গোবিন্দন ২৯ মিনিট ৪৪.৯১ সেকেন্ডে তৃতীয় স্থানে থেকে রেস শেষ করার পর আনন্দের বন্যা বয়ে যায় ভারতীয় শিবিরে। পরে আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স কমিটির নিয়মাবলির ১৬৩.৩বি ধারা অনুযায়ী বাতিল করা হয় লক্ষ্মণের পদক।

ভিডিও রিপ্লে’তে দেখা যায় গোটা দৌড়ে একবার মাত্র ভারসাম্য বজায় রাখতে না পেরে ট্র্যাকের বাইরে পা দিয়ে ফেলেছিলেন গোবিন্দন। ক্রিকেটে এরকম নো-বল হলে থার্ড আম্পায়ার নিশ্চিতভাবে জুম-ইন করে দেখত ক্রিজের ভেতরে বোলারের পায়ের কোনও অংশ রয়েছে কি না।

কিন্তু অ্যাথলেটিক্সে সে সুযোগ নেই। এমন ছোট্ট একটা ভুলের জন্য ভারতীয় অ্যাথলেটের গোটা দৌড়ই বাতিল করে দেওয়া হলো। যদিও এর প্রতিবাদ জানিয়েছে ভারতীয় অ্যাথলেটিক্স এসোসিয়েশন। তবে তাদের প্রতিবাদ ধোপে টেকেনি। আইএএএফ তাদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকে। ফলে ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডে অর্জন করা ভারতের ঐতিহাসিক ব্রোঞ্জ পদকটি হাতছাড়া হয়ে গেলো