তিন দলের বিপক্ষে লড়াই করে এগিয়ে যেতে হবে বাংলাদেশকে

Loading...

এশিয়া কাপে বাংলাদেশের অন্যতম প্রতিপক্ষ ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। এ তিন দলের বিপক্ষে লড়াই করে এগিয়ে যেতে হবে বাংলাদেশকে। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং- এ তিন বিভাগেই দিতে হবে নিজেদের সেরাটা। ওই তিন দলের সঙ্গে লড়াই করতে হলে অন্য অস্ত্র হবে ব্যাটিং। এশিয়ার সেরা তিন দলের চেয়ে ব্যাটিংয়ে কতটা এগিয়ে বাংলাদেশ! দলের তরুণ ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার অবশ্য এগিয়ে রাখলেন নিজেদেরই। সৌম্যর এই কথা শুনে হেসে উঠবেন আপনিও।

অনুশীলন শেষে সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানালেন, এশিয়ায় নিজেদের ব্যাটিংই সেরা। সৌম্য বলেন, ‘আমি অবশ্যই আমাদের সবার উপরে রাখব। সম্প্রতি আমরা যেভাবে ওয়ানডে খেলেছি তাতে আমাদের ব্যাটিং অন্য দুই দল (শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান) থেকে অনেক বেশি ভালো। আমরা যদি সেখানে গিয়ে ভালো ক্রিকেট খেলি। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সবকিছুই ভালোভাবে করি তাহলে আমার মনে হয় ফলাফল আমাদের পক্ষেই আসবে।’এশিয়া কাপে আগের দুই আসরে বাংলাদেশ খেলেছে ফাইনালে।

স্বপ্নও ভেঙেছে এ ব্যাটিংয়ের কারণেই। তবে সেবার ছিল নিজেদের মাঠে। এবার দুবাইয়ে। দেশের বাইরে এশিয়া কাপের এ চ্যালেঞ্জ তাই দারুণ কঠিন। বিশেষ করে দুবাই পাকিস্তানের হোম ভেন্যু। ভারত ও শ্রীলঙ্কাও সেখানে খেলেছে। সেই তুলনাতে বাংলাদেশ অনেকটাই পিছিয়ে। তাই এ তিন দলের চেয়ে ব্যাটিংয়ে এগিয়ে থাকতে হলে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে পারফরম্যান্স করতে হবে তরুণদেরও। এর মধ্যে ফর্মের বাইরে থাকা সৌম্য সরকার যদি দলে থাকেন তাকেও নিতে হবে দারুণ চ্যালেঞ্জ। দলের তরুণদের প্রতিনিধি সৌম্য বিশ্বাস করেন তারাও মুখিয়ে আছেন চ্যালেঞ্জ নিতে। তিনি বলেন, ‘তরুণদের তো সবসময়ই চ্যালেঞ্জ থাকে। কেননা সিনিয়ররা সবসময় পারফর্ম করে, আমরাও যদি করি তাহলে ফলাফল আনতে সুবিধা হবে। ওদের পাঁচজনের সঙ্গে আমরা যদি দিনকে দিন একটু একটু করেও পারফর্ম করি তাহলেও ফলাফল ভালো হবে।’ তবে তরুণদের বিপক্ষে অভিযোগ তারা দারুণভাবে ব্যর্থ। পারফরমেন্সেও তা ব্যর্থতা স্পষ্ট। তবে তরুণরা একেবারেই পারফরমেন্স করেন তা মানতে নারাজ সৌম্য। তিনি বলেন, ‘অবশ্য তরুণ একেবারেই যে করে না- তা কিন্তু না। কিন্তু ওদের (সিনিয়র) তুলনায় আমরা অনেক কম করেছি। আমাদের পারফরমেন্স ১৯-২০ থাকলে হয়তো কথাটা আসতো না যে জুনিয়ররা খারাপ করছে। আমরা হয়তো এই মুহূর্তে ১৮-২০-এ আছি। তাই আমরা যদি ভালো পারফরমেন্স করি তাহলে তাদেরও ভালো হবে, আমাদেরও।’

Be the first to comment on "তিন দলের বিপক্ষে লড়াই করে এগিয়ে যেতে হবে বাংলাদেশকে"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*