পাকিস্তানের নব-নির্বাচিত প্রধামন্ত্রী ইমরান খান

Loading...

পাকিস্তানের নব-নির্বাচিত প্রধামন্ত্রী ইমরান খানের হেলিকপ্টারে চড়া নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। কারণ ক্ষমতায় এসেই সরকারের মন্ত্রী ও আমলাদের ব্যয় সংকোচের বার্তা দিয়েছিলেন ইমরান খান। কিন্তু কয়দিন যেতে না যেতেই ব্যয় বাড়ানোর বিতর্কে জড়িয়ে গেলেন তিনি নিজেই। এই বিতর্কে নাম জড়িয়েছে ইমরানের ঘনিষ্ঠ পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী উসমান বুজদারেরও। 

জানা গেছে, ইসলামাবাদের বানিগালায় প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন থেকে নিজের পুরনো বাড়িতে প্রায়ই যাতায়াত করেন ইমরান। আর এই কাজে ব্যবহার করেন সরকারি হেলিকপ্টার। মন্ত্রী আমলাদের খরচ কমানোর কথা বলে কেন ইমরান নিজে হেলিকপ্টারে যাতায়ত করে ব্যয় বাড়াচ্ছেন, সেই নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

এ টুইটারে মুখ খুলেছেন ইমরানের ঘনিষ্ঠ নেতা মুহাম্মদ আলি খান। তিনি লিখেছেন, ‘‌অনেকেই ইমারনের হেলিকপ্টারের চড়া নিয়ে সমালোচনা করছেন। কিন্তু তাঁরা কি জানেন প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার জন্য তাঁর কনভয়ের পাঁচ থেকে সাতটি গাড়ির জ্বালানি, নিরাপত্তারক্ষীর খরচ এবং অন্যান্য খরচের থেকে ইমরানের হেলিকপ্টারে তিন মিনিটের হেলিকপ্টারের চড়ার খরচ কম।

এছাড়া ইমরান যদি হেলিকপ্টারে যান, তাহলে নিরাপত্তা নিয়েও চিন্তা থাকে না। ট্র্যাফিক জ্যাম হয়ে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগও হয় না। তাই ইমরানের হেলিকপ্টারের চড়া নিয়ে সমালোচনা হয় প্রশংসা হওয়া উচিৎ। ইমরানের পাশাপাশি তাঁর ঘনিষ্ঠ উসমানকে নিয়েও সমালোচনা চলছে। সম্প্রতি পরিবারের সঙ্গে তাঁর একটি ব্যক্তিগত বিমানে সফরের ছবি ভাইরাল হয়।

Be the first to comment on "পাকিস্তানের নব-নির্বাচিত প্রধামন্ত্রী ইমরান খান"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*