খেলাধুলা

অবহেলিত সেই রাজ্জাকই জায়গা পেলেন সেরা একাদশে

আরব আমিরাতে আগামী মাসেই অর্থাৎ সেপ্টেম্বরের ১৫ তারিখ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপ। বাংলাদেশ সহ পাঁচটি দল অংশ নিবে উত্তেজনাপূর্ণ এই ক্রিকেটীয় আসরে। বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচ দিয়েই উন্মোচিত হবে এবারের আসরের পর্দা।এদিকে আসন্ন এই টুর্নামেন্টের প্রতিটি দলের দিকে নজর রাখছেন ক্রিকেট ভক্তরা। শুধু তাই নয়, তারা খেয়াল রাখছেন রেকর্ডবুকের দিকেও। তাই ক্রিকেট প্রেমীদের জানার সুবিধার্থে এশিয়া কাপের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বোলার নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে সল্প পরিসরে।

এখন পর্যন্ত এশিয়া কাপে সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক শ্রীলঙ্কান তারকা স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন। মাত্র ৩.৭৫ ইকোনমিতে বোলিং করে ২৪ ম্যাচে ৩০টি উইকেট নিজের ঝুলিতে কুড়িয়েছেন তিনি। এর মধ্যে সর্বোচ্চ পাঁচ উইকেট নিয়েছেন একবার।

এ তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন লঙ্কান ফাস্ট বোলার লাসিথ মালিঙ্গা। মাত্র ১৩টি ম্যাচ খেলে ২৮টি উইকেট লুফে নিয়েছেন এই ডানহাতি পেসার। যেখানে তিনি পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন তিনবার।

তাঁর এই রেকর্ড এখনও কেউই ভাঙ্গতে পারেনি। শীর্ষ উইকেট শিকারি বোলারের তালিকায় এর পরেই আছেন তাঁরই স্বদেশী স্পিনার অজন্তা মেন্ডিস। সবচেয়ে কম আট ম্যাচ খেলে ২৬ উইকেটের মালিক এক সময়ের এই জাদুকরি স্পিনার।

তালিকার চতুর্থ ও পঞ্চম স্থান দুটি যথাক্রমে পাকিস্তানি স্পিনার সাইদ আজমল এবং সাবেক লঙ্কান পেসার চামিন্দা ভাসের। ২৫টি এবং ২৩টি করে উইকেট নিয়ে জায়গা দুটি নিজেদের করে নিয়েছেন এই দুই বোলার।

বাংলাদেশী সাবেক বাঁহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক রয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বোলারের তালিকায় অষ্টম স্থানে। ১৮ ম্যাচ খেলে ২২টি উইকেট নিয়েছেন দেশের এই তারকা স্পিনার। এছাড়া বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান আছেন এই তালিকায় ১২তম অবস্থানে।

১৪ ম্যাচে ১৭ উইকেট নিয়ে এই জায়গাটি এখন পর্যন্ত দখলে রেখেছেন তিনি। তাঁর পরই আছেন টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ৫.৯৫ ইকোনমিতে বোলিং করে ১৮ ম্যাচে সাকিবের সমান ১৭ উইকেট নিয়েছেন তিনি।