ডিআরএস শব্দটি শুনলে নিশ্চিতভাবেই একজনের মুখ সামনে ভেসে উঠে- মহেন্দ্র সিং ধোনি

Loading...

ডিআরএস শব্দটি শুনলে নিশ্চিতভাবেই একজনের মুখ সামনে ভেসে উঠে- মহেন্দ্র সিং ধোনি। ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের সবচেয়ে কার্যকর ব্যবহার ভারতের এই সাবেক অধিনায়কের চেয়ে ভালো কেউ করতে পারেনি। এবার দেশের মাটিতেই বিপিএলে রিভিউ নেওয়ার দক্ষতা দেখানোর সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। হ্যাঁ, বিপিএলের ৬ষ্ঠ আসরে থাকছে ডিআরএস সিস্টেম। নির্দিষ্ট সময়ে না হয়ে এবারের আসর শুরু হবে ৫ জানুয়ারি।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার দুপুরে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ঈসমাইল হায়দার মল্লিক জানান, ‘৫ জানুয়ারি থেকে বিপিএল শুরু করব। তার জন্য আমরা কিছু সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করলাম। প্লেয়ার ড্রাফট হবে ২৫ অক্টোবর। বিপিএলে এবার রিভিউ থাকবে। প্রতি ইনিংসে প্রতিটি দলের জন্য একটি করে রিভিউ থাকবে। প্রতি ম্যাচ একজন করে বিদেশি আম্পায়ার থাকবে।’

প্রতিটি দল চারজন করে খেলোয়াড় ধরে রাখতে পারবে। তার তালিকা দিতে হবে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে। বিপিএলের গত আসরে খেলেছেন এমন বিদেশিরা এবার ড্রাফটে থাকবে। যারা গতবার ড্রাফটে ছিলেন না, তাদের মধ্য থেকে দুজন করে খেলোয়াড়কে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো দলে নিতে পারবে। বাকিদের ড্রাফট থেকে কিনতে হবে।

ড্রাফটের বাইরে থেকে খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ দেওয়া প্রসঙ্গে ঈসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘এ বছর যেহেতু জাতীয় নির্বাচন, তাই আমাদের খেলার তারিখ পিছিয়ে জানুয়ারিতে নেওয়া হয়েছে। সে সময়ে অন্যান্য লিগও শুরু হবে। ফলে প্রতিটি দলের যে পরিমাণ খেলোয়াড়ের প্রয়োজন হবে, সেটা পূরণ করার জন্য অনিবন্ধিত দুজন করে খেলোয়াড় নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’