শাহরুখ খান, আমির খান ও সালমান খানের বলিউড রাজত্বের কথা সবারই জানা

Loading...

শাহরুখ খান, আমির খান ও সালমান খানের বলিউড রাজত্বের কথা সবারই জানা। কিন্তু গত দু-বছরে তিন খানের মধ্যে শাহরুখের অবস্থান একদমই নিম্নমুখী। শাহরুখের শেষ কয়েকটি ছবি বক্স অফিসে খুব একটা সফলতা পায়নি। আলোচনার দিক থেকেও ছবিগুলো পিছিয়ে।

কিন্তু আমির খান ও সালমান খান একের পর এক ব্লকবাস্টার ছবি উপহার দিয়ে চলছেন। তাদের দু-জনের প্রতিটি ছবি সমালোচকদের ইতিবাচক মন্তব্য পেয়েছে। সেই তুলনায় শাহরুখের অবস্থান একদমই নিম্নমুখী। অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, বলিউড কিং কি খানদের যুদ্ধে হেরে যাচ্ছেন?

কিন্তু পেছন ফিরে তাকালে দেখা যাবে, প্রতিভা, আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব আর রসবোধ দিয়ে শাহরুখ কোটি দর্শকের মন জয় করেছেন। নিজের সেরাটা দিয়েছেন সব সিনেমায়। আর তাই বলিউড কিং খেতাবও জুটেছে নামের আগে। তবে হঠাৎ করেই কেন শাহরুখের এ অবস্থা? ফ্যান, দিলওয়ালে কিংবা জাব হ্যারি মেট সেজাল দর্শকদের চমক দেওয়ার বদলে হতাশ করেছে। বক্স অফিসের অঙ্কটাও সুবিধার নয় খুব একটা।

সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে ছিল জাব হ্যারি মেট সেজাল। সিনেমাটির প্রথম শো শেষ হওয়ার আগেই হল থেকে দর্শকরা নেতিবাচক মন্তব্য লিখে টুইট করেছেন। সেদিনই শাহরুখ বুঝে গিয়েছিলেন এই সিনেমাটির ফলাফল কি হবে! জাব হ্যারি মেট সেজাল মোট আয় করেছিল মাত্র দেড়শ কোটি রুপি, যার মধ্যে ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারে আয় ছিল মাত্র ৮৯ কোটি রুপি।

এদিকে, আগামী ২১ ডিসেম্বর শাহরুখের ‘জিরো’ সিনেমাটি মুক্তি পাবে। শাহরুখ এই সিনেমাটি নিয়ে বলেছেন, বড় চমক নিয়ে আসছেন তিনি। তাই তার কথার ওপর ভিত্তি করে অনেকে আশায় বুক বাঁধছেন। সবাই দেখতে আগ্রহী শাহরুখ নতুন করে কী উপহার দেন! কিন্তু সেটাও যদি দর্শকদের সময় অপচয়ের কারণ হয় তাহলে শাহরুখের অবস্থান কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে সেটা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন বলিউড সমালোচকরা।

তবে নিজেকে নিয়ে শাহরুখ অনেক আগে থেকেই স্বীকার করেছেন, তিনি হচ্ছেন এমন এক তারকা যিনি নিজের তারকাখ্যাতির তলে চাপা পড়েছেন। হিরো ইমেজ ভেঙে তারকাদের বেরিয়ে আসাকে অনেক সময় ইতিবাচক হিসেবে ধরা হয়। জিরোতে শাহরুখের এই উদ্যোগ ভালো ফল আনবে বলেই অনেকে আশা করছেন।

শুধু শারীরিক আকৃতিগত পরিবর্তনই নয়, শাহরুখ জানিয়েছেন জিরোতে তার চরিত্রটি এক ছ্যাঁচড় প্রকৃতির মানুষের। অর্থাৎ শাহরুখ তার আগের যেকোনো চরিত্র থেকে এবার কিছুটা ভিন্নভাবে হাজির হতে যাচ্ছেন। সমালোচকরা বলছেন, এটা নিশ্চিত যে, শাহরুখ তার স্টারডম ভাঙতে চাচ্ছেন। তবে শেষ পর্যন্ত ফলাফলটা কি হবে সেটা দেখা যাবে এ বছরের শেষেই!