দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়ার

Loading...

আমি আসলে কিছু ভেবে পাচ্ছিলাম না, আবারও কিছু একটা করবো, আবারও ঝামেলা লেগে যাবে। তাই চুপচাপ ছিলাম। আমার হাতে বেশকিছু চিত্রনাট্য এসেছিল কিন্তু কিছু করতে পারছিলাম না। বাট থ্যাংক গড, যার কেউ নেই তার আল্লাহ আছে।

বক্তব্যগুলো দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়ার। বুধবার রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনের বলরুমে শাপলা মিডিয়ার নতুন চলচ্চিত্র শাহেন শাহ’র মহরতে মাইক্রোফোন হাতে পেয়ে এমন উচ্ছ্বাস নিয়েই নিজের বক্তব্য শুরু করেন সাম্প্রতিক সময়ের ‘পটাকা’ নিয়ে আলোচিত সমালোচিত এই নায়িকা।

নুসরাত ফারিয়া বলেন, যে সময়টাতে নিজের মনেই দ্বিধা আর দ্বন্দ্ব চলছিল, তখনই শাহীন সুমন ভাইয়ের ফোনে আমি এই ছবিতে অভিনয়ের প্রস্তাব পাই। এরপর সেলিম ভাই ও শামীম আহমেদ রনী ভাইয়ের সাথে কথা হয়। যার কারণে শাকিব ভাইয়ের সাথে আমার প্রথম কাজ হতে যাচ্ছে।

যদিও বুধবার ছবিটির মহরত অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে শোনা গেছে ব্যাংককে ছবির দু’টো গান ইতোমধ্যে শুট করা হয়েছে। নুসরাত ফারিয়ার বক্তব্যেও মিলল এর সত্যতা। শাকিব খানের সময়ানুবর্তিতা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে ফারিয়া বলেন, কল টাইম দেয়া হয়েছে সকাল সাড়ে সাতটায়। আমি প্রেয়ায় রেডি। এইসময় মেক আপআর্টিস্ট এসে বললেন, আপা কই এখনও রেডি হননি, ওদিকে তো শাকিব ভাই শট দেওয়ার জন্য রেডি।

তিনি বলেন, আমার ধারণা ছিল সাড়ে ৭ টা সময় থাকলেও নায়কেরা একটু ধীরে সুস্থে আসবেন। বা একটু লেইট হতেই পারে। কিন্তু শাকিব খানের সময়য় জ্ঞান দেখে সত্যিই বিস্মিত হয়েছি। তিনি যে অনেক পাঙ্কচুয়াল তার আরও অনেক প্রমাণ পেয়েছি কাজ করতে গিয়ে।

মহরত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন-কিংবদন্তি অভিনেতা উজ্জ্বল, তারিক আনাম খান, নুসরাত ফারিয়া, অমিত হাসান, নানা শাহ্, ডন, ডিজে সোহেল, রেবেকা। ‘শাহেনশাহ’র শুটিং আগামী ১১ সেপ্টেম্বর থেকে কক্সবাজারে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সিনেমাটির ডিজিটাল কন্টেন্ট পার্টনার লাইভ টেকনোলজিস লিমিটেড। ছবিটি প্রযোজনা করছে শাপলা মিডিয়া।