দুবাইতে মূল্যবান ব্যাগ হারিয়েছিলেন এক নারী, তারপর….

Loading...

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এক মার্কিন নারী দুবাইতে ভ্রমণে ব্যাগ হারিয়ে ফেলেছিলেন। ব্যাগে মূল্যবান ডলার, পাসপোর্ট ও ক্রেডিট কার্ড ছিল, যা ভ্রমণের সময় হারালে বিপাকে পড়তে হয় যে কোনো মানুষকেই। সেই নারীও এসব জিনিস হারিয়ে চরম বিপাকে পড়েছিলেন।

দুবাইতে প্রথমবার বেড়াতে গিয়েছিলেন তিনি। খোঁজাখুঁজি করে ব্যাগটি না পাওয়ায় দিয়ানে মেরি ইরউইন নামে সেই নারী হতাশ হয়েই পড়েছিলেন। এরপর তিনি পুলিশের সাহায্য কামনা করেন। যদিও পুলিশ তার সেই ব্যাগ ফেরত দিতে কতটা আন্তরিক হবে, সে সম্পর্কে সন্দীহান ছিলেন তিনি।

তবে দুবাই পুলিশ সে নারীকে আশ্বস্ত করেছিল যে ব্যাগটি খুঁজে পেতে সবধরনের সহায়তা করবে তারা। এরপর কথা অনুযায়ী সে নারীর ব্যাগ অনুসন্ধান শুরু করে পুলিশ।

দুবাইয়ের টুরিস্ট পুলিশ পেট্রল দ্রুত অনুসন্ধান শুরু করে তার ব্যাগ। এজন্য প্রাথমিকভাবে কোনো সূত্র ছিল না পুলিশের কাছে। তাই তিনি যেসব রাস্তা দিয়ে হেঁটেছিলেন প্রথমে সেসব রাস্তাতেই ঘুরে ঘুরে অনুসন্ধান চালানো হয়। তাতে ব্যাগটি মেলেনি। এরপর তিনি জানান একটি লিমুজিন গাড়িতে তিনি চড়েছিলেন। সেই গাড়িটি আটকে অনুসন্ধান চালায় পুলিশ। তাতেও মেলেনি ব্যাগটি। এ সময় অন্য কেউ ব্যাগটি পেয়ে জমা দিয়েছে কি না, সেই অনুসন্ধানও চালানো হয়। এজন্য একটি পৃথক বিভাগ রয়েছে দুবাই পুলিশের। তবে সেখানেও ব্যাগটি পাওয়া যায়নি।

এর পরেও ব্যাগটির সন্ধান না পাওয়ায় সেই নারী যেই রেস্টুরেন্টে খাওয়াদাওয়া করেছেন তাতে অনুসন্ধান চালায় পুলিশ। ভালোভাবে অনুসন্ধানের পরেও সেখানে পাওয়া যায়নি।

সেই নারী জানান তিনি দুবাইয়ের আরমানি হোটেলে ভ্রমণ করেছিলেন। এরপর পুলিশ সেই আরমানি হোটেলে অনুসন্ধান শুরু করে। শেষ পর্যন্ত সেই হোটেলেরই এক কোনে পাওয়া যায় ব্যাগটি। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পরে সেই ব্যাগটি পাওয়া গেলেও তাতে সব জিনিস কি পাওয়া যাবে? ভালোভাবে ব্যাগটি দেখে সেই নারী জানান সবকিছুই ঠিকঠাক রয়েছে। তিনি জানান, অসাবধানতাবশত ব্যাগটি পড়ে গিয়েছিল।

মাত্র একটা ব্যাগের জন্য দুবাই পুলিশের এই প্রচেষ্টার কথা তিনি শুধু ধন্যবাদ দিয়ে প্রকাশ করতে পারছিলেন না। পরবর্তীতে দুবাই পুলিশের এ উপকারের কথা তিনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমেও জানিয়েছেন। সূত্র : খালিজ টাইমস।