খেলাধুলা

মাঠে নামার আগে আফগানিস্তানকে যে দুঃসংবাদ দিল ইমরুল কায়েস

এশিয়া কাপের চূড়ান্ত স্কোয়াডেও ছিলেন না কিন্তু গতকাল শুক্রবার হঠাৎই তাঁকে ডাক দেয়া হয় এশিয়া কাপের স্কোয়াডে। যেটা তাঁর ১১ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা।

নিজের ক্রিকেটের অভিজ্ঞতার সাথে নতুন এই অভিজ্ঞতাকে সঙ্গী করে দলে জায়গা পেলে সুযোগ কাজে লাগাতে চান ইমরুল। আজ শনিবার সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ইমরুল বলেছিলেন আমি চেষ্টা করব দলের জন্য যেভাবে দরকার ম্যানেজমেন্ট যেভাবে চায় সেভাবেই পারফর্ম করার চেষ্টা করতে।

তিনি বলেন আমি আমার সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করব। এর আগেও খেলেছি তবে এবার একটু ভিন্ন অভিজ্ঞতা হবে। আমি এত বছর ক্রিকেট খেলেছি আমার চেষ্টা থাকবে এত দিনের অভিজ্ঞতা সেখানে দলের জন্য কাজে লাগানোর।

চলছিল ভারতের বিপক্ষে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচ। মাঠে ব্যাটিং করছেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা এবং মেহেদী মিরাজ। অধিনায়ককে না জানিয়ে হঠাৎই বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলেন বাংলাদেশ থেকে আরব আমিরাত উড়িয়ে নিবেন দুই বাঁহাতি ওপেনার ইমরুল কায়েস এবং সৌম্য সরকারকে।

সেই সিদ্ধান্তে যেমন অবাক হয়েছেন সবাই তেমনি হয়েছেন ইমরুলও। খুলনায় খেলছিলেন চারদিনের ম্যাচ সেখান থেকে আচমকা জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার চিন্তা মাথায়ই আনেননি তিনি।

এই ব্যাপারে তিনি বলেন আসলেই অবাক হওয়ার মতই ব্যাপার। আপনারা সবাই জানেন আমরা খুলনায় চারদিনের ম্যাচ খেলছিলাম। এই টুর্নামেন্টে এভাবেই ডাক পাব চিন্তা করি নি কখনই।

তিনি বলেন অবশ্যই এমন একটা টুর্নামেন্টে খেলতে পারছি সেই জন্য নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। যদি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাই তাহলে চেষ্টা করব নিজের সেরা দিয়ে পারফর্ম করার