জাতীয়

যখন বাংলাদেশে আঘাত আনতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’

ক্রমাণয়ে বাংলাদেশের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ঘূর্নিঝড় তিতলি। ঝড়টি ভারতের দিকে আগামী বৃহস্পতিবার সকালের দিকে আঘাত আনতে পারে বলে জানিয়েছে সেইদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এরপর সেটি ক্রমান্বয়ে দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের ভূখণ্ডের দিকেও আসতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ঘণ্টায় ১১০ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন অংশের আকাশে মেঘের ঘূর্ণি দেখা যাচ্ছে। সকাল থেকেই গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি পড়ছে।

ঘূর্ণিঝড়টি বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৮০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৮৫০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭২০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৭৪০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল। এই জন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৪ ন্মবর সতর্ক সংকেত দেখে যেতে বলা হয়েছে।