জাতীয়

মানবসম্পদ সূচকে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

গতকাল বিশ্বব্যাংকের প্রকাশিত নতুন মানবসম্পদ সূচকে (হিউম্যান ক্যাপিটাল ইনডেক্স) ভারতের নিম্নমুখী অবস্থান মেনে নিতে পারছে দেশটির সরকার। ফলে তারা ওই সূচককে প্রত্যাখ্যান করেছে। বর্তমানে মানবসম্পদ সূচকে ১৫৭ দেশের মধ্যে ভারতের অবস্থান ১১৫তম।

তাছারা দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারত ও তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ পাকিস্তানের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। তারা শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ এমনকি এই অঞ্চলের অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্র দেশ নেপালের চেয়েও পিছিয়ে। তাই এই সূচককে প্রত্যাখ্যান করেছে ভারত। কিন্তু অন্যদিকে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

বিশেষ করে শিশুর মৃত্যুহার রোধ এবং নারী উন্নয়নে ঈর্ষনীয় সাফল্য পেয়েছে দেশটি। ফলে প্রতিবেশী দুই দেশ ভারত ও পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ। কিন্তু এই বাস্তবতা মেনে নিতে পারছে না নয়াদিল্লি। এক বিবৃতিতে অর্থমন্ত্রী বলেন, ভারত সরকার বিশ্বব্যাংকের করা এইচসিআই রিপোর্টকে অগ্রাহ্য করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে সরকার মানব সম্পদ উন্নয়ন বিশেষ করে শিশুদের জীবনকে আরো সহজ করার মতকর্মসূচিগুলো অব্যাহত রাখবে বলে তিনি জানিয়েছেন। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে সিঙ্গাপুর। দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও হংকং। কিন্তু এই সূচকে সবচেয়ে বাজে অবস্থানে রয়েছে আফি্রকার দরিদ্র দেশগুলো।

এদিকে বিশ্ব ব্যাংকের সদস্য ১৫৭ দেশের মধ্যে সবার পেছনে রয়েছে শাদ আর সাউথ সুদান। এদিকে ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সঙ্গে বার্ষিক বৈঠকে গতকাল বৃহস্পতিবার ১১ অক্টোবর এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে বিশ্বব্যাংক। স্বাস্থ্য, শিক্ষা, শিশুমৃত্যু, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ইত্যাদি বিষয়গুলোর ওপর জরিপ চালিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই সূচক।

আরও পড়ুন

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ফরিদুর রেজা সাগর-ব্রাউনিয়া

Sheikh Anik

হাজী সেলিম নৌকার টিকেট পেয়ে বাকশক্তি ফিরে পেলেন

Syed Hasibul

হঠাৎ কেঁপে উঠলো রাজধানীসহ গোটা দেশ

Syed Hasibul