খেলাধুলা

রেকর্ডের দিনেও সালাহ’র জন্য কাঁদছে মিশর!

স্পোর্টস ডেস্ক: রেকর্ডের দিনেও সালাহ’র জন্য কাঁদছে মিশর! আফ্রিকান নেশনস কাপে মোহামেদ সালাহ’র নৈপুণ্যে দুর্দান্ত জয় পেয়েছে মিশর। শুক্রবার সোয়াজিল্যান্ডকে ৪-১ গোলে হারায় তারা। এই ম্যাচে রেকর্ড গড়েছেন মিশরীয় তারকা ফুটবলার। তবে রেকর্ড গড়ার আনন্দ ফিকে হয়ে যায় যখন ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন এই লিভারপুল ফরোয়ার্ড। ফলে আবারও নিজেদের ‘মেসির’ জন্য কাঁদতে হচ্ছে মিশরীয়দের।

ম্যাচের চতুর্থ গোলটি করেন সালাহ। কর্নার কিক থেকে সরাসরি শটে দৃষ্টিনন্দন গোলটি করেন তিনি। কিন্তু ম্যাচের শেষদিকে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন সালাহ। সাইডলাইনে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ফিরেও এসেছিলেন। কিন্তু খেলার অবস্থায় ফিরতে না পারায় তাকে তুলে নেন কোচ।

এর আগেই তিনজন বদলি খেলোয়াড় নামিয়ে ফেলায় তার বদলি হিসেবে আর কাউকে নামানো সম্ভব ছিল না, ফলে ১০ জনের দল নিয়েই ম্যাচ শেষ করে মিশর। বাছাইপর্বে এই নিয়ে তিন ম্যাচের দুটিতে জিতল তারা।

এদিকে ম্যাচে একটা রেকর্ডেও নাম লিখিয়েছেন সালাহ। কর্নার কিক থেকে গোল করে আফ্রিকান কাপ অব নেশনসের বাছাইপর্বে মিশরের হয়ে সর্বাধিক গোলের রেকর্ড (১৩) গোল করেছেন তিনি। আগের রেকর্ডটি ছিল হোসাম হাসানের। সবমিলিয়ে মিশরের হয়ে এটি সালাহ’র ৪০তম গোল, যা আফ্রিকান দেশগুলোর মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ। তার চেয়ে বেশি গোল আছে সালার’ই স্বদেশী হাসান এল শাজলি (৪৪ গোল) এবং হাসানের (৭৯ গোল)।

তবে রেকর্ডের চেয়ে তার ইনজুরি নিয়েই বেশি চিন্তিত ভক্তরা। কারণ আগামী শনিবার থেকেই ফের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ফিরছেন তিনি। ওইদিন হাডার্সফিল্ড টাউনের বিপক্ষে মাঠে নামবে লিভারপুল। গত মৌসুমে লিভারপুলের হয়ে ৪৪ গোল করা সালাহ এবার সেই ফর্মের ধারেকাছেও ঘেঁষতে পারছেন না। চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত মাত্র ৩ গোল করেছেন ব্যালন ডি’অরের তালিকায় থাকা এই ফরোয়ার্ড।

যদিও ম্যাচ শেষে মিশরের সহকারী কোচ হ্যানি রামজি জানিয়েছেন, সালাহ’র ইনজুরি খুব বেশি মারাত্মক নয়।