খেলাধুলা

কাতার বিশ্বকাপ আমার হবে : দিবালা

স্পোর্টস ডেস্ক: ফুটবল বিশ্বে আর্জেন্টিনা দলের রয়েছে অগণিত ভক্ত-সমর্থক। দীর্ঘ সময় ধরে কোনো শিরোপা না জিতলেও সমর্থনের কমতি হয় না ল্যাটিন আমেরিকার এ দলটির।

১৯৮৬ সালে ডিয়েগো ম্যারাডোনা শেষবারের মতো আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানোর পরে আর্জেন্টিনায় খেলেছেন অনেক রথী-মহারথী। কিন্তু কেউই জেতাতে পারেননি বিশ্ব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা বিশ্বকাপ ট্রফি।

আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের সবশেষ আশা ছিলো লিওনেল মেসিকে ঘিরে। ২০১৪ সালে রানারআপ ও ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বাদ পড়ে হতাশ করেছেন তিনিও।

২০২২ সালে কাতারে আসন্ন বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা দলের প্রাণ ভোমরা হতে যাচ্ছেন পাওলো দিবালা। যিনি কিনা ইতোমধ্যে লিওনেল মেসির স্বেচ্ছা বিশ্রামের সময়ে বর্তমানে হওয়া সব প্রীতি ম্যাচে দলের গুরুদায়িত্ব থাকে ২৪ বছর বয়সী এ ফরোয়ার্ডের কাঁধে।

এখন থেকেই নিজেকে বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করতে থাকা দিবালা মনে করেন ২০২২ সালের বিশ্বকাপটি তারই হবে। আর্জেন্টাইন সংবাদ মাধ্যম ‘মুন্ডো আলবিসেলেস্তে’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে দিবালা বলেন, ‘আপনি যখন আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের জার্সি গায়ে জড়ান, তখন শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত এর মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখা আপনার দায়িত্ব। আশা করছি কাতার বিশ্বকাপটা আমার হবে। তবে এখনও অনেক পথ পাড়ি দিতে হবে।’

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর থেকেই স্বেচ্ছা বিশ্রামে রয়েছেন মেসি। অনেকেই বলছেন আর দলে ফেরার দরকার নেই তার, অনেকেই বলছেন অন্তত কাতার বিশ্বকাপ পর্যন্ত মেসিকে প্রয়োজন। তবে দিবালা মনে করেন এ সিদ্ধান্তটা মেসিকে নিতে দেয়াই উত্তম।

দিবালা বলেন, ‘সবাই জানে লিওনেল মেসি কে এবং কি করতে পারে। যখন সে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলতে নামে তখন যেভাবেই হোক আমাদের সাহায্য করার চেষ্টা করে। তবে এটা পুরোপুরি তার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। আমরা তার জন্য অপেক্ষা করবো এবং আমরাও জানি আমাদের জন্য কোন জিনিসটা গুরুত্বপূর্ণ।’