খেলাধুলা

আর্জেন্টিনার হয়ে ১৯৭৮ সালে বিশ্বকাপ জিতেছেন মারিও কেম্পেস

স্পোর্টস ডেস্ক: আর্জেন্টিনার হয়ে ১৯৭৮ সালে বিশ্বকাপ জিতেছেন মারিও কেম্পেস। ১৯৮৬ সালে বিশ্বকাপ জিতেছেন ম্যারাডোনা। ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ জয়ের কাছাকাছি গিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ফাইনালে হেরেছে তার দল।

২০১৮ সালেও বিশ্বকাপে পারফর্মেন্স ভালো ছিলনা মেসির। দলও বিদায় নিয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে। যার কারনে প্রচুর সমালোচনায় পড়তে হয় মেসিকে।

এরপর বিশ্বকাপ শেষে নিজেকে জাতীয় দল থেকে কিছুদিনের জন্য সরিয়ে রেখেছেন মেসি। আর এই সময়টাতে বেশ কয়েকবারই মেসির সমালোচনা করনে ম্যারাডোনা।

সর্বশেষ তিনি বলেন, মেসি এমন একজন অধিনায়ক যে ম্যাচের আগে ২০ বার টয়লেটে যায়। এবার ম্যারাডোনার সেই কথার জবাব দিয়েছে ১৯৭৮ বিশ্বকাপ জয়ী কেম্পেস।

তিনি বলেন, আমরা জানি মেসির একার পক্ষে কিছু জিতা সম্ভব না। একমাত্র মানসিক রোগীরাই মেসির মেধা নিয়ে সন্দেহ করে। এরাই বলে মেসি আর্জেন্টিনার জন্য কিছু ভাবে না, জাতীয় সঙ্গীত গায় না, ম্যাচের আগে ৫০ বার বাথরুমে যায়।’

তিনি আরো বলেন, প্রতিবারই ম্যারাডোনা এমন কথা বলেন যাতে প্রত্যেকের জীবন কঠিন হয়ে যায়। আমি মনে করি এখন আমাদের নতুন যুগের সূচনা করা দরকার। তাকে মেক্সিকোর ক্লাবের কোচের দায়িত্ব পালন করতে দিন।

মারিও কেম্পেস বলেন, আর্জেন্টিনা খারাপ খেলেনি। আমাদের শান্ত হতে হবে। আর্জেন্টিনা নতুন যুগ শুরু করেছে। দলে এখন কোনো সংকট নেই।

তিনি বলেন, আমি মনে করি সবকিছু মিলিয়ে দল উন্নতি করেছে। দল ঢেলে সাজানো হয়েছে। মেসি দলে নেই। আমি মনে করি, দলের জন্য এটি ভালো দিক। মানসিকভাবে চাঙ্গা হতে তাকে জাতীয় দল থেকে কিছুদিন বিরতি দেয়া হয়েছে। আমি মনে করি এটি দরকার ছিল।