খেলাধুলা

বাংলাদেশের ১৩তম ক্রিকেটার হিসাবে যে লজ্জার রেকর্ড গড়ল ফজলে রাব্বি

ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো খেলে সুযোগ পেয়েছেন জাতীয় দলে। কিন্তু নিজের প্রথম ম্যাচে শূন্য হাতে ফিরেছেন ফজলে মাহমুদ রাব্বি। বাংলাদেশের ১৩তম ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডে অভিষেকে শূন্য রানে আউট হয়েছেন তিনি।বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে প্রথম ওয়ানডে শুরু হওয়ার আগে রাব্বির মাথায় ক্যাপ পরিয়ে দিয়েছেন আকরাম খান।

তবে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের কাছ থেকে পাওয়া ‘পুরস্কার’ অনুপ্রাণিত করতে পারেনি ৩০ বছর বয়সী রাব্বিকে। ৮০টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে নেমে তিনি চতুর্থ বলেই কট বিহাইন্ড, টেন্ডাই চাতারার একটু লাফিয়ে ওঠা বল কাট করতে গিয়ে ব্রেন্ডন টেলরের গ্লাভসবন্দি।

এর আগে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পক্ষে ১২ জন ক্রিকেটার শূন্য রানে আউট হয়েছেন অভিষেকে। সর্বশেষ উদাহরণ ২০১৩ সালে, হাম্বানতোতায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অভিষিক্ত জিয়াউর রহমান আউট হন রানের খাতা না খুলেই।

বাংলাদেশ প্রথম ওয়ানডে খেলে ১৯৮৬ সালে, কলম্বোতে এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে। স্বাভাবিকভাবে সেদিন লাল-সবুজ পতাকাকে প্রতিনিধিত্ব করা ১১ জনেরও অভিষেক হয়েছিল। সেই ম্যাচে নুরুল আবেদীন নোবেল, গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, জাহাঙ্গীর শাহ বাদশা এবং সামিউর রহমান রান করতে পারেননি।

অভিষেকে শূন্য করার পরের ঘটনা ১৯৮৮ এশিয়া কাপে। চট্টগ্রামে ভারতের বিপক্ষে হারুনুর রশিদ লিটন সঙ্গী হন লজ্জার রেকর্ডের। এরপর ১০ বছর এমন লজ্জা পেতে হয়নি বাংলাদেশকে। ১৯৯৮ সালে ঢাকায় পাকিস্তানের বিপক্ষে জাকির হোসেন আউট হয়ে যান প্রথম বলেই। মানে ‘গোল্ডেন ডাক’।