খেলাধুলা

সাকিবের অনুমতি চাওয়ায় অবাক বিসিবি

চলতি বছরের শেষের দিকে অনুষ্ঠিতব্য সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই) টি-২০ লিগে ইনজুরি আক্রান্ত ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে অনুমতি চাইতে দেখে নিদারুণ অবাক হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।
সিরিজসেরার রেকর্ডে সাকিব

এই আসরটি যে সময় মাঠে গড়াবে তার দিন কয়েক আগে চোট থেকে সেরে উঠতে পারেন সাকিব। সেক্ষেত্রে আদৌ যদি অংশ নেওয়া হয়ে থাকে, এই লিগই হতে পারে তার মাঠে ফেরার মাধ্যম। কিন্তু চোটগ্রস্ত অবস্থায় সাকিবের ভিনদেশি লিগে খেলার আবেদন বোর্ডকে বিস্মিত করেছে।

তবে অবাক হলেও সাকিবের অনুমতির বিপরীতে নেতিবাচক ভাবনা এখনই নেই বোর্ডের। এ প্রসঙ্গে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেন, ‘প্রথমে শুনে অবাক হয়েছিলাম। তবে আজ (সোমবার) ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলে কিছুটা আশ্বস্ত হয়েছি। আগামীকাল (মঙ্গলবার) রিপোর্ট দেখে বাকিটা বুঝতে পারব।’

বিসিবির সাকিবের অনুমতি চাওয়ার ব্যাপারে অবাক হওয়ার কারণ সাকিবের চোট নিয়ে দুশ্চিন্তাই। আকরাম বলেন, ‘আমরা ওর আঙুলের পরিচর্যা নিয়ে ভীষণ চিন্তিত। এ রকম একটা সময়ে হুট করে এমন আবেদন আশা করিনি।’অনুমতি চাইবার আগে সাকিব বোর্ডের কর্তাদের সাথে আলোচনা করতে পারতেন এমনটি উল্লেখ করে আকরাম বলেন, ’আবেদনপত্রের আগে যদি আমাদের সঙ্গে একটু আলাপ করত কিংবা ডাক্তারের প্রতিবেদন দিত, তাহলে বিবেচনা করা সহজ হতো। কিন্তু এর কোনোটাই ও করেনি।’

গত মাসে এশিয়া কাপের সময় সাকিবের হাতের ইনজুরি খুবই বাজে অবস্থার দিকে অগ্রসর হয়। অস্ট্রেলিয়ায় চিকিৎসা নিতে যাওয়ার আগেই ঢাকায় জরুরীভাবে একটি অপারেশন করাতে হয়েছিল তাকে। তবে দীর্ঘস্থায়ী এ হাতের ইনজুরি থেকে ক্রমশ উন্নতির দিকে এগোচ্ছেন সাকিব আল হাসান। গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়া থেকে চিকিৎসা শেষে ফিরে তিনি বলেছিলেন, তার মাঠে ফিরে আসা নির্ভর করবে কত দ্রুত তার হাতের সংক্রমণের উন্নতি হয় তার উপর। তখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন হোম সিরিজেই মাঠে ফিরতে পারেন বলে আশা দিয়েছিলেন তিনি