জাতীয়

স্কুলছাত্র হৃদয় হত্যায় তিনজনের ফাঁসি

কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের ছাত্র মুতাসসিম বিন মাজেদ হৃদয়কে অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় তিন আসামির ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মো. মশিউর রহমান এ রায় দেন। আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অনুপ কুমার নন্দী এ তথ্য জানিয়েছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন: সাব্বির খান, হেলাল উদ্দিন ড্যানী ও আব্দুর রহিম শেখ ওরফে ইপিয়ার। রায় ঘোষণার সময় প্রধান আসামি সাব্বির খান উপস্থিত ছিলেন। বাকি দুই আসামি পলাতক রয়েছেন।

২০১১ সালের ২৩ মে সন্ধ্যায় কুষ্টিয়ার তেঘরিয়া পূর্বপাড়া এলাকা থেকে কুষ্টিয়া জিলা স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র হৃদয়কে অপহরণ করা হয়। চার দিন পর তার মা তাসলিমা খাতুনকে ফোন করে ১২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।

তাসলিমা ওই বছর ২ জুন দুই লাখ টাকা নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে দিলেও হৃদয়কে মুক্তি না দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ মাটি চাপা দেয় অপহরণকারীরা। এদিকে ছেলে অপহৃত হওয়ার পর ৩১ মে তাসলিমা থানায় একটি মামলা করেন।

অপহরণের ১৩৪ দিন পর গ্রেপ্তার এক আসামির স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ভেড়ামারা-কুষ্টিয়া মহাসড়কের ১০মাইল এলাকা থেকে হৃদয়ের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।