Notunshokal.com
লাইফ স্টাইল

কিডনির পাথর থেকে বাঁচতে হলে শুধু ২টি কাজ করবেন !!

আমাদের দেহের রক্ত পরিশোধনের অঙ্গ কিডনি। এছাড়াও শরীরে জমে থাকা অনেক রকম বর্জ্যও পরিশোধিত হয় কিডনির মাধ্যমে। কিডনির নানা সমস্যার মধ্যে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে কিডনিতে পাথর হওয়া। কিন্তু ঠিক কি কি কারণে কিডনিতে পাথর হওয়া রোধ করতে পারবেন, জানেন কি? আসুন জেনে নেয়া যাক কিডনিতে পাথর হওয়ার কারণগুলো সম্পর্কে, যা হয়তো আপনার জানা নেই।কাচা লবন খাবেন না : অনেকেই খাবারে লবণ খান যা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। কারণ লবণের সোডিয়াম খুব সহজে কিডনি দূর করতে পারে না এবং তা জমা হতে থাকে কিডনিতে। এছাড়াও অতিরিক্ত সোডিয়াম সমৃদ্ধ খাবারের কারণেও কিডনিতে পাথর জমার সম্ভাবনা বাড়ে।

পানি পান করুন : কিডনির কাজ হচ্ছে দেহের বর্জ্য ছেঁকে দেহকে টক্সিনমুক্ত করা। আর এই কাজটি কিডনি করে পানির সহায়তায়। যদি আপনি পানি পরিমিত পান না করেন তাহলে কিডনি সঠিকভাবে দেহের বর্জ্য দূর করতে পারে না যা কিডনিতে জমা হতে থাকে পাথর হিসেবে। সুতরাং পরিমিত পানি পান করুন।

সৌভাগ্যের জন্য বাড়িতে নিয়ে আসুন এই ৮টি ফুলগাছ !!

জুঁই: এই ফুলের মিষ্টি সুবাস এমনিতেই মন ভাল করে দেয়। বলা হয়, এই ফুল প্রেম আনে জীবনে। সঙ্গে অর্থভাগ্যও। অর্কিড: মনে শান্তি আনে। বন্ধুত্ব গাঢ় হয়। প্রেম হয় চিরস্থায়ী। গ্রিক সংস্কৃতিতে এই ফুলকে প্রজননের প্রতীক মনে করা হয়। মানিপ্ল্যান্ট: ফেন শুই মতে, ঘরে এই গাছ পজেটিভ এনার্জির বিচ্ছুরণ ঘটায়। চিন দেশে, নতুন বছরের আগমনে এই গাছ উপহার হিসেবে দেওয়া হয়।

গোলাপ: জীবনে প্রেম নিয়ে আসে এই ফুল। এবং এই ফুলের নানা রং, ভিন্ন ধরনের এনার্জির সৃষ্টি করে। যেমন সাদা গোলাপ শান্তি ছড়ায়। পিচ ও হলুদ যথাক্রমে আধ্যাত্মিক মনোভাব ও বন্ধুত্ব বাড়ায়। গোলাপি রং প্রেমের শুরু হলে, লালা গোলাপ নিয়ে আসে ভালবাসা। ক্যাকটাস: ক্যাকটাসে ফুল হলে, তা নাকি শুভ সংবাদ বয়ে আনে। এমনটাই মনে করে চিন ও মেক্সিকোর বাসিন্দারা।পিস লিলি: গাঢ় সবুজ পাতার মাঝে ধবধবে সাদা ফুল— দেখেই মন ভাল হয়ে যায়। ফলে ঘরে থাকলে তা সুন্দর লাগবেই। তা ছাড়া, এই গাছ বাতাসের ফরমালডিহাইড, বেনজিন ও কারবন মোনোঅক্সাইড শুষে নেয়। অ্যাস্থমা, মাথা ব্যথার উপশম কমিয়ে দেয় এই গাছ।

তুলসি: এই গাছের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে হিন্দু ধর্মও। পাশাপাশি ঔষধি গুণ সম্পন্ন এই গাছ বাতাসও শুদ্ধ রাখে। কথিত, নিজের হাতে তুলসি গাছ লাগিয়ে, সেই গাছের পাতা যাকে খাওবেন, সে আপনার প্রতি আসক্ত হয়ে পড়বে। রোজমেরি: প্রেম ও ফুল একই সূত্রে বাঁধা। রোজমেরিও সেই তালিকায় পড়ে। সঙ্গে রয়েছে এর নানাবিধ গুণাগুণ। স্ট্রেস-মুক্ত রাখতে সাহায্য করে এই ফুল।

আরও পড়ুন

স্ত্রীকে যে মিথ্যা বলা জায়েজ

সুস্থ থাকতে চান- তাহলে বিয়ে করে ফেলুন তারাতারি!

যে সব কঠিন রোগের মহা ঔষধ টমেটো