রাজনীতি

অবশেষে কোন আন্দোলন ছাড়াই নির্বাচণে যাচ্ছে বিএনপি !

নির্বাচন কমিশন তড়িঘড়ি করে তফসিল ঘোষণা করার পর অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। এদিকে তফসিল ঘোষণার পরপরই বিএনপি স্থায়ী কমিটির নেতারা বৈঠক করেছেন। এদিকে বিএনপির নীতিনির্ধারকেরা জানান, সাত দফা দাবির সুরাহা না হওয়ায় দলের মধ্যে অনেকেই আন্দোলনে যাওয়ার পক্ষে, কেউ কেউ আন্দোলন করে নির্বাচনে যাওয়ার পক্ষে।

আবার কেউ কেউ আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে যাওয়ার পক্ষে। তবে দলের হাইকমান্ডের প্রায় সবাই আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে যাওয়ার পক্ষেই মত দিচ্ছেন। এর কারণ হিসেবে তারা বলছেন, এখন আন্দোলন করলে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার আরো বেড়ে যাবে, নির্যাতনের মুখ পড়তে হবে। এতে শক্তি ক্ষয় হবে। নির্বাচন করার মতো মাঠে নেতাকর্মী থাকবে না। পোলিং এজেন্ট দেয়া কঠিন হয়ে পড়বে।

এর জন্য নির্বাচনের ফল নিজেদের পক্ষে আনতে তাদের নেতাকর্মীরা যাতে মাঠে থাকতে পারে ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মোকাবেলা করতে পারে; সে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। বিএনপি নির্বাচনে যাওয়ার বার্তা অনেক আগে থেকেই তৃণমূলে দিয়েছে। এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণা।
জানা যায় সবকিছু ঠিক থাকলে কয়েকদিনের মধ্যে সেই ঘোষণা আসবে বলে জানা গেছে।

এদিকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান চাইছেন তার দল মনোনয়নপত্র দাখিল করুক। দাখিলের পর তারা পর্যবেক্ষণ করবে নির্বাচনে সরকার কতটুকু নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করছে। নির্বাচন কমিশন কতটুকু শক্তিশালী অবস্থান নিয়েছে। যদি শেষ পর্যন্ত বিএনপি দেখে, নির্বাচনে সরকার ও নির্বাচন কমিশন যথাযথ ভূমিকা পালন করছে না, সেক্ষেত্রে আন্দোলন জোরদার করা হবে।