খেলাধুলা

জিয়া মাশরফির পরামর্শ নিয়ে ভারতের লিগে

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতের প্রো-কাবাডি লিগে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন কাবাডি খেলোয়াড় জিয়াউর রহমান। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর এই সৈনিক গতবার খেলেছেন পুনেরি পল্টনের হয়ে। এবার তাকে দলে টেনেছে ওপার বাংলার ‘বেঙ্গল ওয়ারিয়র্স’। বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারবেন এই আনন্দেই তিনি আত্মহারা। ভারতে যাওয়ার আগে নিয়ে গেছেন প্রিয় মানুষ জাতীয় ওয়ানডে দলের মাশরাফি বিন মুর্তজার পরামর্শ।

ওপার বাংলার শীর্ষ এক গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাতকারে জিয়া বলছেন, ‘গত মে মাসে নিলামের সময় আমি শিবিরে ছিলাম। সেখানেই প্রথম জানতে পারি, বেঙ্গল ওয়ারিয়র্স আমাকে নিয়েছে। শুনেই মনটা আনন্দে ভরে গিয়েছিল। প্রথম আনন্দটা হলো দলের মধ্যে বাংলায় কথা বলার লোক পাব। সঙ্গে ডাল-ভাত, আলু-পোস্ত, ইলিশ, চিংড়ি, রসগোল্লা। এগুলোর হাতছানি কত দিন এড়িয়ে থাকা যায় বলুন তো?’

জনপ্রিয় ক্রিকেট অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার সঙ্গে জিয়ার সম্পর্ক অনেকদিনের। ম্যাশ তার কাছে বন্ধু তথা বড় ভাইয়ের মতো। জনপ্রিয় এই অধিনায়ককে নিয়ে শ্রদ্ধায় অবনত জিয়াউর রহমান, ‘দারুণ মানুষ মাশরফি ভাই। আমরা যখন বাংলাদেশে কাবাডির জাতীয় শিবিরে, তখন এসেছিলেন আমাদের সঙ্গে দেখা করতে। সেটাই প্রথম আলাপ। সেদিন আমার সঙ্গে দাবা খেলেছিলেন উনি। এত সফল খেলোয়াড় কিন্তু এক বিন্দু অহংকার নেই। খুব সহজে মিশে যেতে পারেন সকলের সঙ্গে। তারপর বহুবার কথা হয়েছে তার সঙ্গে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এবার প্রো-কাবাডি খেলতে আসার সময় ঢাকা বিমানবন্দরে দেখা হয়েছিল মাশরফি ভাইয়ের সঙ্গে। আমি বেঙ্গল ওয়ারিয়র্সের হয়ে খেলছি শুনে অভিনন্দন জানান। সেইসঙ্গে কলকাতা সংক্রান্ত নানা মূল্যবান পরামর্শও দেন আমাকে। কলকাতা গিয়ে তার পরামর্শগুলো পরখ করে নেব।’

রংপুরের কুড়িগ্রামের ছেলে জিয়া আগে ফুটবল খেলতেন। নৌবাহিনীতে যোগ দেওয়ার পর শুরু করেন কাবাডি খেলা। ২০০৬ সালে বাংলাদেশের হয়ে এশিয়ান গেমস কাবাডিতে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন। ২০১৬ সালে মুম্বাইয়ে অনুষ্ঠিত কাবাডি বিশ্বকাপে দারুণ পারফর্মেন্স দেখান তিনি। এরপরের বছর প্রথমবারের মতো ভারতে প্রো কাবাডি লিগ খেলার সুযোগ পান পুনেরি পল্টনের হয়ে। লিগে জিয়ার দল বি গ্রুপে ছয় দলের মধ্যে প্রথম দুইয়ে নেই। তবে জিয়ার বিশ্বাস, কলকাতা পর্বের আগেই ওপরে উঠে আসবে তার দল। শিরোপা জিতে দেশে ফেরার আগে বলিউড স্টার অক্ষয় কুমারের একটা অটোগ্রাফ নেওয়ার ইচ্ছা আছে তার।