বিনোদন রাজনীতি

হিরো আলম নির্বাচন করবে, তাতে এতো বিরক্তি বা হাসাহাসির কি আছে

হিরো আলম নির্বাচন করবে, তাতে এতো বিরক্তি বা হাসাহাসির কি আছে ? হিরো আলম তো সৎ উপার্জনে চলে। হিরো আলমের নির্দিষ্ট একটা পেশা আছে। সে তো চাঁদাবাজি করে না, মানুষের সাথে প্রতারণা করে না। সে কারো জায়গাজমি দখল করে না, মাস্তান পোষে না

হিরো আলম ইয়াবা বা অন্যান্য মাদকের ব্যবসা করে না। সে নিয়োগ-বদলি- তদবির দিয়ে পয়সা বানায় না। হিরো আলম কোনো খুন গুম করেছে বলেও শুনিনি। সে ঘুষ খায় না, সে অস্ত্র ব্যবহার করে না, মানুষকে ভয় দেখায় না। হিরো আলম পরের হক মেরে খায় না। হিরো আলম মিথ্যা বলে বলে শোনা যায়নি। তার নামে কোন মামলা নেই। হিরো আলম বৌ পেটায় না, রাস্তাঘাটে নারীদের উত্যক্ত করে না। পরের বৌ ভাগিয়ে নেয় না। হিরো আলম ঋণ খেলাফি না, হিরো আলম দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করে না। হিরো আলম রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ধর্মকে ব্যবহার করে না, ধর্মের অবমাননাও করে না।

হিরো আলম ভিন্ন মতাবলম্বী মানুষকে হয়রানি করে না। হিরো আলম সুবিধা বুঝে দল পাল্টায় না, চোখপাল্টি দেয় না। সে গাড়ি ভাঙে না, আগুন লাগায় না, জনগণের সম্পদ নষ্ট করে না। হিরো আলম ভিনদেশের তাঁবেদারি বা দালালি করেনা। অর্থের বিনিময়ে সে নিজ দেশ বা দেশের মানুষের স্বার্থ বিকিয়ে দেয় বলে মনে হয় না। সে প্রতিপক্ষের নামে কোন মিথ্যাচার বা কুৎসা রটনা করে ফায়দা লোটে না। সে গুজব ছড়ায় না।

হিরো আলমের একমাত্র দোষ, সে খুব চিকনা। এই সামান্য দোষে তাকে নিয়ে এতো ট্রল করা কি যুক্তিযুক্ত?

(ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)