জাতীয় রাজনীতি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ মন্তব্য করে তার পদত্যাগ দাবি করেছেন গণফোরামের সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন

নিউজ ডেস্ক: প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ মন্তব্য করে তার পদত্যাগ দাবি করেছেন গণফোরামের সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, এখনো নির্বাচনী পরিবেশ তৈরি করতে পারেনি নির্বাচন কমিশন। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের ভূমিকা নিরপেক্ষ হচ্ছে না। তাই তার জায়গায় অন্য কাউকে নিয়োগ দেওয়া হোক। আর তা না হলে আমরা আইনি পদক্ষেপ নেব।

রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের এক সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল হোসেন এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, যারা আদিষ্ট হয়ে কাজ করে তারা সংবিধান লঙ্ঘন করছে। এদের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এ জন্য চারদিকে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে হবে। রাষ্ট্রের মালিক ভেবে জনগণকে ব্যবস্থা নিতে হবে। যদিও সরকার নানা অগণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টি করে রেখেছে। বিনা কারণে, বিনা অপরাধে গ্রেফতার, অন্তরীণ চলছে। এতদিন যা হয়েছে আমরা তা মেনে নিয়েছি। এখন থেকে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের জন্য যা যা পদক্ষেপ নেওয়া দরকার সরকারকে নিতে হবে। তা না হলে আমরা কঠিন পদক্ষেপ নেব। আমরা সুশাসন চাই, গণতন্ত্র চাই। সুষ্ঠুভাবে জনগণ যাতে ভোট দিতে পারে সেই পদক্ষেপ সরকারকে নিতে হবে। পুলিশ এক্ষেত্রে সুন্দর ভূমিকা পালন করতে পারে। তারা যদি নিজেদের সরকারের বাহিনী না ভেবে রাষ্ট্রের বাহিনী মনে করে তাহলেই তা সম্ভব।

বিচার বিভাগকে ব্যবহার করে জামিনে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হচ্ছে বলেও মন্তÍব্য করে ড. কামাল বলেন, সরকারি দলের প্রার্থী এবং মন্ত্রীদের দাপটের সাথে নির্বাচনী প্রচার ও ভোটারদের কাছে তাদের বক্তব্য তুলে ধরা হচ্ছে। নির্বাচনী কাছে মন্ত্রীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসন তাদের প্রটোকলসহ সার্বিক সহযোগিতা করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। বলেন, বিরোধীদলের প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ঠিক উলটো কাজ করা হচ্ছে। যেমন, কর্মীদের সাথে নিজ এলাকায় বৈঠক পর্যন্ত করতে দেয়া হচ্ছে না। এদিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরেও গণভবন, মন্ত্রীদের বাসভবন, সরকারি অফিস রাজনৈতিক কর্মকান্ডে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

সংবাদ সম্মেলনে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শীর্ষ নেতা সুব্রত চৌধুরী বলেন, গণভবন-মন্ত্রীদের বাসভবন ও সরকারি অফিস রাজনৈতিক কর্মকা-ে ব্যবহার করা হচ্ছে। যা আচরণ বিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

আরও পড়ুন

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ফরিদুর রেজা সাগর-ব্রাউনিয়া

Sheikh Anik

হেলমেট পরিহিত সেই যুবক আটক

হিরো আলমের মনোনয়নপত্র আপিলেও বাতিল

Syed Hasibul