খেলাধুলা

টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ; একাদশে নেই কোন পেসার

স্বাগতিক বাংলাদেশ ও সফরকারী উইন্ডিজের মধ্যকার দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। 

২০২০ সালেই দেখা যাবে ১০০ বলের ক্রিকেট

বাংলাদেশের কাছে ম্যাচটি সিরিজ জয় নিশ্চিত করার গেম, অন্যদিকে এই ম্যাচ দিয়ে সিরিজ হার এড়াতে চায় উইন্ডিজ।

এর আগে গত ২২ নভেম্বর চট্টগ্রামে শুরু হওয়া প্রথম টেস্টে উইন্ডিজকে ৬৪ রানে হারায় বাংলাদেশ। এই জয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় টেস্টে জয় তো বটেই, ড্র করতে পারলেই বাংলাদেশ পাবে সিরিজ জয়ের সম্মান।

সেটি সম্ভব হলে ২০০৯ সালের পর এবারই প্রথম উইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ পাবে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে অবশ্য করতে হচ্ছে অনেক হিসেবনিকেশ। এক ম্যাচ হেরে পিছিয়ে থাকা উইন্ডিজ এই ম্যাচে নামবে নিজেদের সেরা পারফরম্যান্স ঢেলে দিয়েই। ক্যারিবীয়দের সফলভাবে মোকাবেলা করা বাংলাদেশের জন্য তাই চাট্টিখানি কথা নয়। এছাড়া আলোচনা হচ্ছে উইকেট নিয়েও।

চট্টগ্রাম টেস্টে স্পিন বান্ধব উইকেট অনেক সমালোচনা কুড়ালেও একই পথে হাঁটতে পারে ঢাকা টেস্টও। অন্তত এমনই আভাস পাওয়া গেছে ম্যাচের একাদশ এবং ম্যাচ পূর্ববর্তী আলোচনা ও বিশ্লেষণ দেখে। বাংলাদেশ স্পিন-নির্ভর বোলিং আক্রমণ গড়লেও উইন্ডিজ অবশ্য অধিনায়কের কথামত পেস-স্পিনে ‘ভারসাম্য’ রেখেই মাঠে নেমেছে।

ম্যাচে উইন্ডিজ একাদশে পরিবর্তন এসেছে, পরিবর্তন এসেছে বাংলাদেশ একাদশেও। ক্যারিবীয় পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞায় দল থেকে ছিটকে যাওয়ায় তার বদলে একাদশে সুযোগ পেয়েছেন শেরমন লুইস। ছোটখাটো চোটের কারণে ইমরুল কায়েস বাদ পড়েছেন এই টেস্টের স্কোয়াড থেকেই। তার বদলে একাদশে জায়গা পেয়ে অভিষেক ঘটিয়েছেন এখনও কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলা সাদমান ইসলাম। টাইগারদের একাদশে নেই কোনো পেসার। মুস্তাফিজুর রহমান দল থেকে বাদ পড়েছেন, আর একাদশে সুযোগ পেয়েছেন লিটন দাস।

একনজরে দুই দলের একাদশ- 

বাংলাদেশ: সাদমান ইসলাম, সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, মোহাম্মদ মিঠুন, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান।

উইন্ডিজ: ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), কাইরন পাওয়েল, শাই হোপ, শিমরন হেটমেয়ার, সুনীল আমব্রিস, রস্টন চেজ, শেন ডওরিচ, দেবেন্দ্র বিশু, জমেল ওয়ারিক্যান, শেরমন লুইস, কেমার রোচ।