রাজনীতি

ইসি’ডেকে এনে তামশা করছে

চট্টগ্রাম-৫ (হাটহাজারী) আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ও দলের ভাইস-চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন বলেছেন, ‘আগেই ভেবেছিলাম, এখানে এসে সঠিক বিচার পাওয়া যাবে না। বাইরে থেকে লোকদের ঢাকায় ডেকে এনে তামশা মঞ্চস্থ করছে ইসি।’

আপিলে মনোনয়নপত্র অবৈধ রাখার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও প্রার্থিতা ফিরে না পেয়ে পরে সাংবাদিকদের কাছে এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।

মীর নাছির বলেন, ‘এখানে তামাশা করা হচ্ছে। তাদের সিদ্ধান্ত পূর্বনির্ধারিত। আমারটা একেবারে রিজেক্ট করে দিয়েছে। পেন্ডিং রাখলেও তো হতো।’

মীর নাছির ছাড়াও চট্টগাম-৫ আসনে বিএনপির আরও দুই প্রার্থী মীর নাছিরের ছেলে মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ও ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানার মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। বাছাইয়ে নাছিরের ছেলেও মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়।

তবে ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানা মনোনয়নপত্র বহাল থাকে। ফলে এই আসনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টির প্রার্থী বর্তমান এমপি ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদের বিপক্ষে তিনিই লড়বেন।

যদিও ফারজানাকে নিয়েও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ থেকে ‘জঙ্গি সম্পৃক্ততার’ অভিযোগ করা হয়েছে। ২০১৫ সালের ১৮ আগস্ট ঢাকার ধানমন্ডি থেকে সাকিলা ফারজানাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। জঙ্গি সংগঠন হামজা বিগ্রেডকে অর্থায়নের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তাকে কয়েক দফা রিমান্ডেও নেয়া হয়। তবে শেষ পর্যন্ত সর্বোচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে ২০১৬ সালের ৭ জুন কারাগার থেকে মুক্তি পান ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানা।

এদিকে, সাকিলার মা ফরিদা ওয়াহিদ ওই সময় দাবি করেছিলেন, তার মেয়ে বিএনপির হয়ে অনেক মামলা লড়েছেন। এজন্য প্রতিহিংসায় তাকে এসব মামলায় জড়ানো হয়েছে। ব্যারিস্টার সাকিলার বাবা প্রয়াত সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম। তিনি এক সময় চট্টগ্রাম-৫ আসনে বিএনপির এমপি ছিলেন। তিনি সংসদে হুইপের দায়িত্বও পালন করেন। এছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হিসেবেও ছিলেন।

আরও পড়ুন

হেলমেট পরিহিত সেই যুবক আটক

হিরো আলমের মনোনয়নপত্র আপিলেও বাতিল

Syed Hasibul

হিরো আলম নির্বাচন করবে, তাতে এতো বিরক্তি বা হাসাহাসির কি আছে

Syed Hasibul