খেলাধুলা

অবশেষে বাংলাদেশ কে উইকেট দেখা পেল শরিফুল ইসলাম। পাকিস্তানের তৃতীয় উইকেটের পতন

ইমেজিং এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ শুরু করেছে বাংলাদেশ। ওপেনিং জুটিতে জাকির হোসেন এবং মিজানুর রহমান যোগ করেন ৪৮ রান। ২৫ রান করে মিজানুর রহমান আউট হলে জাকির হাসান এর সাথে ব্যাটিংয়ে নেমে হাল ধরেন নাজমুল হাসান শান্ত।

ইতোমধ্যেই ফিফটি তুলে নিয়েছেন জাকির হাসান। ৯৮ রানের পার্টনারশিপ গড়ে আউট হন জাকির হাসান। দলীয় ১৪৬ রানের মাথায় ৬৯ রান করে আউট হন জাকির। জাকির হাসান এর পরেই ব্যক্তিগত ৪৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নাজমুল হাসান শান্ত।

দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পরা বাংলাদেশ দলকে টেনে তুলছে ইয়াসির আলী চৌধুরী এবং মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ১২৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন এই দুই ব্যাটসম্যান। ৫৬ রান করে আউট হন ইয়াসির আলী। অপরপ্রান্ত থেকে ব্যাটিং তান্ডব চালাতে থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন। ৭৪ বলে ৮৫ রান করে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক হোসেন। আহত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩০৯ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৩ রানের মাথায় দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে পাকিস্তান। দলীয় ১৩ রানের মাথায় আলি ইমরান কে এবং ২৩ রানের মাথায় সৈয়দ শাকিল কে আউট করেন নাঈম হাসান। তবে দ্রুতই ভেতরে পাকিস্তান। অভিজ্ঞ মহাম্মদ নেওয়াজ এবং জিসান মালিকের ৮৮ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় পাকিস্তান। দলীয় ১১১ রানের মাথায় জিসান মালিক কে ৪৭ রানে আউট করেন শরিফুল ইসলাম।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৩ উইকেট হারিয়ে ২২ ওভারে ১১৫ রান সংগ্রহ করেছে পাকিস্তান।

ইমার্জিং এশিয়া কাপের বাংলাদেশ দল: কাজী নুরুল হাসান সোহান (অধিনায়ক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (সহ-অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, মিজানুর রহমান, শফিউল ইসলাম, জাকির হাসান, সাইফ হাসান, ইয়াসির আলি চৌধুরি, তানভির ইসলাম, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাঈম হাসান, শরিফুল ইসলাম, কাজী অনিক ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ এবং মোহর শেখ।