খেলাধুলা

বাংলাদেশ জয়ের জন্য উইন্ডিজদের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দিল

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ দল। আজ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নেমেছে টাইগাররা। টসে জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠান উইন্ডিজ অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ধীরে গতিতেই এগিয়ে যাচ্ছিল বাংলাদেশ দল। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারের তৃতীয় বলে থমাস ওসানের করা সেই বলটি গিয়ে আঘাত হানে লিটন দাসের পায়ে। আর তাতেই স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

অন্যদিকে রানের খাতা না খুলেই ফিরেছেন ইমরুল কায়েস। থমাস ওসানের বলে উইকেটরক্ষক শাই হোপের হাতে তালুবন্ধি হয়ে ফিরেন তিনি। তবে এরপর ব্যাট হাতে দলের হাল ধরেন তামিম ও মুশফিক। অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন মুশফিক ও তামিম। ৬২ বলে ৪ চারে অর্ধশতক পূর্ণ করেন মুশফিক।

অন্যদিকে ৬১ বলে ৪ চার ও ১ ছয়ে অর্ধশতক পূর্ণ করেন তামিম। কিন্তু এরপর আর ক্রিজে থাকতে পারেননি তামিম। ৫০ রান করেই কেমার রোচের ক্যাচে দেবেন্দ্র বিশুর বলে ফেরেন তামিম। তামিমের ফেরার পর সাঝঘরে ফেরেন মুশফিক।

৮০ বলে ৫ চারে ৬২ রান করে থমাসের বলে উইকেটরক্ষক শাই হোপের হাতে তালুবন্ধি হয়ে ফিরেন তিনি। এরপর দলকে এগিয়ে নিয়ে নেওয়ার দায়িত্ব নেন মাহমুদউল্লাহ এবং সাকিব। কিন্তু ৫১ বলে ৩ চারে ৩০ রান করে পাওয়ালের বলে হেটমায়ারের ক্যাচে সাঝঘরে ফিরেন মাহমুদউল্লাহ।

এরপর ৬ রান করে ফেরেন সৌম্য। বিশুর ক্যাচে থমাসের বলে সাঝঘরে ফেরেন তিনি। এরপর মাঠে নামেন লিটন। এদিকে ৪৬ রানে সাঝঘরে ফেরার পথে ছিলেন সাকিব। কিন্তু নো বলে বেঁচে যান তিনি। এরপর ফ্রি হিট বলে ছয় মেরেই অর্ধশতক পূর্ণ করেন সাকিব।

৫৪ বলে ৪ চার ও ১ ছয়ে অর্ধশতক করেন সাকিব। এদিকে বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি লিটন। ৮ রানেই কেমো পলের শিকার হয়ে ফেরেন তিনি।

এরপর ৬৫ রান করে কেমার রোচের বলে বোল্ড হয়ে সাঝঘরে ফেরেন সাকিব। তবে শেষ পর্যন্ত মাশরাফি ৬ রানে ও মিরাজ ১০ রানে অপরাজিত ছিল। এরই ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৫৫ রান করে বাংলাদেশ। জয়ের জন্য উইন্ডিজদের প্রয়োজন ২৫৬ রান।

বাংলাদেশ একাদশ: মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: চন্দ্রপল হেমরাজ, শাই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, মারলন স্যামুয়েলস, শিমনন হ্যাটমিয়ার, রোভমান পাওয়েল (অধিনায়ক), রোস্টন চেজ, কেমো পল, কেমার রোচ, দেবেন্দ্র বিশু, ওশেন থমাস।