জাতীয়

মানসিক চাপ কমানোর কিছু সহজ উপায়

বর্তমানে যান্ত্রিক জীবনে মানুষের কাজের চাপ দিন দিন বেড়েই চলেছে। সবাই কম-বেশি চাপের মধ্যেই থাকেন। দুশ্চিন্তা করেন। আবার মানসিক চাপ থেকেই অনেকে নানা রোগে আক্রান্ত হন। তবে এ থেকে মুক্তির উপায় আছে। এমন কিছু ব্যবস্থা আছে যেগুলো অভ্যাসে পরিণত করতে পারলে উদ্বেগজনিত ক্ষতির পরিমাণ কমিয়ে আনা যায়।

জেনে নিন মানসিক উদ্বেগ কমানোর কিছু উপায়ঃ

১. প্রযুক্তি জীবনযাপন সহজ করার বিপরীতে আমাদের জীবনকে আরও কঠিন করে দিচ্ছে। প্রযুক্তি যতটা উন্নত হচ্ছে আমরা ততটাই অফিসের কাজ, সামাজিক জীবন ইত্যাদিকে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি সময় দিয়ে দিচ্ছি। সারা দিন অফিসের পরও কলিগদের সাথে সামাজিক মাধ্যমে কাজ সম্পর্কিত কথাবার্তা বললে দিন শেষেও মানসিক চাপ বাড়বে। ফলে নিজের জন্য সময় বের করতে পারবেন না।

২. এছাড়াও অপ্রয়োজনীয় প্রযুক্তির ব্যবহার থেকে বিরত থেকে সেই সময়টা হয়তো কাটাতে পারেন বই পড়ে বা পছন্দের কোনো কাজ করে। এতে আপনার মানসিক চাপ অনেকটা কমে যাবে।

৩. অফিসের কাজের ফাঁকে বা ঘুম থেকে উঠতে না উঠতেই এক কাপ চা বা কফি আমারা খাই। তবে অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণের ফলে এর খারাপ প্রভাব শরীরে পড়ে। এটি উদ্বেগ, উত্তেজনা বা দুশ্চিন্তা আরও বাড়িয়ে দেয়, যাকে আমরা সাধারণত এংজাইটি বলে থাকি।

৪. তবে শুধু ক্যাফেইনই কি আমাদের মধ্যে উদ্বেগ, উত্তেজনা বা দুশ্চিন্তা বাড়ার প্রধান কারণ? না এমন নয় তাই ক্যাফেইন খাওয়া সম্পূর্ণ বাদ দিতে হবে না, তবে একটু নিয়ম মেনে খেতে হবে।

৫. এর জন্য অতিরিক্ত চিন্তা বাদ দিতে করুন কিছু হালকা ব্যায়াম। যেমন বলুন আমি ভালো আছি। এছাড়া সোজা হয়ে বসা বা দাঁড়ানো। কাজের ফাঁকে ফাঁকে শ্বাসপ্রশ্বাস ব্যায়াম অনুশীলন করার মাধ্যমেও উদ্বিগ্নতা কমিয়ে মনকে শান্ত করতে পারেন।