Notunshokal.com
বিনোদন

অভিনেতা সিয়ামের স্ত্রী এই অবন্তী

অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন এই সময়ের তরুণ-তরুণীদের ক্রেজ ছোট ও বড় পর্দার তুমুল জনপ্রিয় অভিনেতা সিয়াম আহমেদ। এরইমধ্যে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানও সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বর সিয়ামের রাজারবাগের বাসায় আরেকটি গায়েহলুদের অনুষ্ঠান হবে।

আগামীকাল রোববার ১৬ ডিসেম্বর রাজধানীর এক রেস্তোরাঁয় দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠজনদের উপস্থিতিতে তাদের আকদ হবে বলে সিয়াম আহমেদ নিজেই বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, দীর্ঘ সাত বছর ধরে প্রেম করছেন সিয়াম। তবে কার সাথে প্রেম সে বিষয়ে গণমাধ্যমে কখনোই মুখ খুলেননি তিনি। শুধু জানিয়েছিলেন, যার সাথে প্রেম করছেন তিনি মিডিয়ার কেউ না।

একজন জনপ্রিয় নায়কের বিয়ে এত চুপিসারে কেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে সিয়াম বলেন, এটা একেবারেই ঘরোয়া আয়োজন। আমাদের দুই পরিবার চেয়েছে, নিজেদের মতো করে আয়োজনটি করতে। হুটহাট করেই সিদ্ধান্ত। তাই আমার অঙ্গনের কাউকে বিয়েতে দাওয়াত দিতে পারিনি। নতুন বছর সুবিধাজনক একটি সময়ে সবাইকে দাওয়াত দিয়ে একটি অনুষ্ঠানের কথা আমরা ভেবেছি। আপাতত, আমাদের নতুন জীবন শুরুর আগে সবার কাছে দোয়া চাই।

তিনি বলেন, জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত আমরা একসঙ্গে থাকব, এমন ভাবনা থেকে আমাদের সম্পর্কের শুরু। তার থেকেও বড় ব্যাপার হচ্ছে, সম্পর্কগুলো এখন এতটাই ভঙ্গুর হয়ে গেছে, সেখান থেকে একটা সম্পর্ক সাত বছর ম্যানটেইন করা, আর এবার নতুন জীবন শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়া সত্যিই সবার দোয়া ও আল্লাহর ইচ্ছা ছাড়া সম্ভব না।

নিজের পেশাগত বিষয়ে অবন্তী যথেষ্ঠ শ্রদ্ধাশীল জানিয়ে তিনি বলেন, আমি যে পেশায় আছি, সেখানে তো আরও বেশি কঠিন। আমি সব সময় যে বিষয়টা দেখেছি, অবন্তী আমার প্রতি যতটা শ্রদ্ধাশীল তার চেয়েও বেশি আমার পেশার প্রতি। আমি যা করছি, সবকিছুতে সে সাপোর্ট করেছে। আমার প্রথম সিনেমায় কাজ করার আগে অনেক বেশি উৎসাহ দিত।

পেশাগত ও ব্যক্তিগত ভালো কিছু করতে পারবেন জানিয়ে সিয়াম বলেন, অবন্তী যে সাপোর্ট আমাকে করে আসছে, এভাবে থাকলে পেশাগত ও ব্যক্তিজীবন দুই জায়গায় হয়তো ভালো কিছু করতে পারব। একজন পুরুষের সফলতার পেছনে তার জীবনসঙ্গীর সমর্থন বড় ভূমিকা রাখে। তেমনি নারীর ক্ষেত্রেও জীবনসঙ্গীর সমর্থন খুব জরুরি।

অবন্তী নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে হিউম্যান রিসোর্স বিষয়ে স্নাতক শেষ করেছেন। বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নি করছেন। বিশ্ববিদ্যায়ের প্রথম বর্ষ থেকে পরিচয় সিয়ম-অবন্তীর। দীর্ঘ সাত বছর ধরে ছিল তাদের প্রেমের সম্পর্ক।

অন্যদিকে, সিয়াম বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। ২০১০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হিসাববিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হলেও পরের বছর ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনে ভর্তি হয়ে সেখান থেকে আইন বিষয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন।যুক্তরাজ্য থেকে বার অ্যাট ল শেষ করে জড়িয়ে পড়েন অভিনয়ে। ‘ভালোবাসা ১০১’ নাটকের মধ্য দিয়ে সিয়ামের অভিনয় জীবন শুরু তার। এরপর চলচ্চিত্রে। চলচ্চিত্রে এসে বেশি সফলতা পেয়েছেন তিনি। প্রথম সিনেমা ‘পোড়ামন ২’ দিয়ে দর্শক হৃদয়ে জায়গা করার পর সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ‘দহন’ ছবিটি।

আরও পড়ুন

হ্যাপির প্রথম ছবি শেষ পর্যন্ত নিষিদ্ধ হলো

Syed Hasibul

হোটেলে ভারতীয় অভিনেত্রী পায়েল চক্রবর্তীর ঝুলন্ত লাশ, হত্যা নাকি আত্মহত্যা?

Adnan Opu

হেলমেটবিহীন হিরো আলমকে আটকালো পুলিশ