রাজনীতি

পটুয়াখালীর বিএনপি প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির গাড়ি ভাংচুর

আজ শনিবার ১৫ ডিসেম্বর দুপর দেড়টার দিকে পটুয়াখালীর গলাচিপা পৌরসভার টিএনটি রোড এলাকার তালেফ মিয়ার বাসার সামনে পটুয়াখালীর-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির স্ত্রীর ওপর হামলা ও গাড়িবহর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তার স্ত্রী এবং বোনের স্বর্ণালঙ্কারও লুট হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন গোলাম মাওলা রনি। জানা যায়, স্বামীর পক্ষে গণসংযোগ চালাতে গেলে এ হামলার শিকার হন রনির স্ত্রী।

এ ব্যাপারে গোলাম মাওলা রনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আজ দুপুর ১২টার দিকে গলাচিপা পৌর শহরে গণসংযোগের জন্য আমার স্ত্রী গাড়ি নিয়ে বের হন এবং গণসংযোগ চালান। দুপুর দেড়টায় গলাচিপার প্যাদাপাড়া এলাকার তালেব মিয়ার বাড়ি যান। উপজেলা বিএনপির প্রবীণ নেতা তালেব মিয়াকে নিয়ে গণসংযোগ চালাতে বের হলে ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় আমার আমার স্ত্রীর গাড়ি ভাঙচুর করে তারা। এতে আমার স্ত্রীসহ বিএনপির ১৫-২০ জন নেতাকর্মী আহত হন। সেই সঙ্গে আমার স্ত্রীর কাছ থেকে টাকা-পয়সা, স্বর্ণালঙ্কার ও লিফলেট ছিনিয়ে নিয়ে যায় তারা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে স্থানীয়রা। পরে পুলিশ এসে তাদের থানায় নিয়ে তিন ঘণ্টা বসিয়ে রাখে। এ ঘটনায় মামলা দিতে চাইলে ওসি বলেন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ না করে মামলা নিতে পারব না। আজকের মধ্যে ওসি মামলা না নিলে আগামীকাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে মামলা করব আমি।’

এ ব্যাপারে গলাচিপার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহ মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে গোলাম মাওলা রনির গাড়ি থানায় রয়েছে। হামলার বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’