রাজনীতি

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনের ২ দিন আগে নতুন কর্মসূচি দিল

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এদিকে একাদশ নির্বাচন সামনে রেখেই নতুন কর্মসূচির ডাক দিয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ডা. কামাল হোসেন। সম্প্রতি রাজধানীর বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসায় এক বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা এই সিদ্ধান্ত নেন। এদিকে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামীকাল শুক্রবার ২৮ ডিসেম্বর গণসমাবেশ করার কর্মসূচি পালন করা হবে।

এ সময় ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে চলা বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে একাদশ নির্বাচনে ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে কমিটি করছে বিএনপি। তারা একেকটি কেন্দ্রকে ঘিরে তিন স্তরে অবস্থান নেবে। ভোট কারচুপি রোধ ও ভোটারদের আশ্বস্ত করার কাজ করবে এসব কমিটি। পাশাপাশি যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় তৈরি থাকবে তারা। নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্তের বেশ আগেই কেন্দ্রভিত্তিক কমিটির কথা বলেছিল বিএনপি। পরে, আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা ও শেষ পর্যন্ত ভোটযুদ্ধে থাকার কথা বললেও, নির্বাচনি প্রচারে মাঠে নেই দলটির নেতাকর্মীরা।

এদিকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের নেতাকর্মীদের ধরে নিয়ে চলে যাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তাই গ্রেপ্তার এড়াতে নিরবে কাজ করে চলেছে বিএনপি। কারন এবারের ভোটটা মোকাবেলা করতে হবে অনেকটা নিরবেই।’

এ সময় ৩০শে ডিসেম্বরের কর্ম পরিকল্পনা প্রসঙ্গে বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সহ-সভাপতি নবীউল্লাহ নবী জানান, ‘মা-বোন যারা আছে, অনেকেই ভয়-ভীতির কারণে ভোট কেন্দ্রে যান না। এজন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদেরকে উৎসাহিত করে কেন্দ্রে আনার জন্যে এই নির্বাচন কমিটি।’

এদিকে মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল হামিদ ডাবলু কমিটির বিষয়ে বলেন, ‘তিন স্তর বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। সেই তিন স্তরের মধ্যে যদি প্রথম স্তরকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করা হয়, তাহলে দ্বিতীয় স্তর কাজ করবে। দ্বিতীয় স্তরকে যদি গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করা হয় তাহলে জনগণ প্রতিহত করবে।’