রাজনীতি

এরশাদ অবশেষে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলেন

আজ বৃহস্পতিবার ২৭ ডিসেম্বর বিকেল ৫টার দিকে এক সংবাদ সম্মেলনে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ঘোষণা দিয়েছিলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে মহাজোটের প্রার্থীকে সমর্থন দিবেন এবং তার পক্ষে কাজ করবেন। কিন্তু মাত্র ৩ ঘণ্টার মধ্যেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টির কেউ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবে না।’

এর আগে বারিধারায় নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে মহাজোটের বাইরে আলাদা প্রার্থীদের বিষয়ে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছিলেন, ‘মহাজোট মনোনীত যেসব প্রার্থী আছে, তারা ছাড়া অন্যদের সরে যেতে হবে। মহাজোটকে বিজয়ী করার জন্য সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। মহাজোট সরকার উন্নয়নের রোল মডেল। এবারের নির্বাচনে মহাজোটই জিতবে। কারণ, বিএনপির অতীত ইতিহাস ভালো না। নৌকা নয়, ধানের শীষ ঠেকাতে জাপার আলাদা প্রার্থী।’

এরপর আজ বৃহস্পতিবার রাত আটটায় জাতীয় পার্টির কার্যালয় থেকে এরশাদের ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি দেলোয়ার জালালীর পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এরশাদ এরশাদ বলেন, ‘মহাজোট ব্যতীত জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা মুক্তভাবে নিজ নিজ আসনে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন।’ ইতোমধ্যে সবাইকে নির্বাচনের মাঠে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিভিন্ন গণমাধ্যমে আমার বক্তব্য ভুলভাবে প্রচারিত হচ্ছে। তাই সব প্রচারিত/প্রকাশিত এবং সম্প্রচারিত সংবাদ সংশোধন করার অনুরোধ করছি।’

এদিকে দলীয় সূত্রে জানা গেছে, দেশের যেসব স্থানে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থীরা উম্মুক্ত ভাবে নৌকা ও ধানের শীষের সঙ্গে সমান লড়াইয়ে অবতীর্ণ সেসব স্থানে আসনগুলোতে শেষ পর্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে জাতীয় পার্টি।