খেলাধুলা

মাশরাফির বিশ্বকাপ খেলা এটি তো একটি সাংঘাতিক ব্যাপার : পাপন

নড়াইল ২ আসন থেকে নির্বাচিত হয়ে বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তজা। ইতিহাসের প্রথম এমপি হিসাবে কোন ক্রিকেট বিশ্বকাপে খেলবেন মাশরাফি। এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর মাশরাফির বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের বিষয়টিকে ‘সাংঘাতিক ব্যাপার’ বলে আখ্যা দেন পাপন।

তিনি বলেন, ‘ (মাশরাফির বিশ্বকাপ খেলা) এটি তো একটি সাংঘাতিক ব্যাপার! আমার মনে হয় ক্রিকেট ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো এটি হতে যাচ্ছে।’

‘আমার এটি জানা নেই বা কখনো শুনিনি যে একজন পার্লামেন্ট সদস্য ক্রিকেট খেলছে মাঠে এবং অধিনায়কত্ব করছে। সুতরাং এটি পুরোপুরি নতুন হবে এবং আমি অনেক রোমাঞ্চিত এটা নিয়ে। আমার মনে হয় এর চেয়ে ভালো কিছু আর হতে পারে না।’

নিজ আসন নড়াইল-২ এর মানুষের জন্য কাজ করতে চান মাশরাফি। একইসাথে মাশরাফির মনে এখনও ক্রিকেট আগের মতোই রয়েছে বলেও মনে করেন পাপন।

তিনি বলেন, ‘এলাকার মানুষের জন্য ও কিছু করতে চায়। আজকেও যতক্ষণ আমার সাথে ছিল একই কথা বলেছে যে- পাপন ভাই আমার এটি লাগবে, ওটা লাগবে। আমি শুধু বলেছি- সব হবে, আগে শপথটি নিয়ে নাও, মন্ত্রীপরিষদ গঠন হোক, তুমি যা যা চাও সব হবে। এগুলো নিয়ে চিন্তা করো না।’

‘ওর মনের মধ্যে যে সারাক্ষণ ক্রিকেটই আছে এতে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ ও একদম ওখান থেকে সরাসরি অনুশীলনে চলে গিয়েছে। বিপিএল শুরু হতে যাচ্ছে। সুতরাং নিজের খেলার প্রতি সম্পূর্ণ সিরিয়াস আসে, একটুকুও পরিবর্তন হয়নি। এর বড় প্রমাণ হচ্ছে, যখন আমরা নির্বাচনের মাঠে চলে গিয়েছি এবং এলাকায় কাজ করছি তখন কিন্তু সে খেলছিলো এবং খেলার মধ্যে ছিলো। ও অনেক দেরি করে গিয়েছে। এটাই প্রমাণ করে যে এখনও খেলাটিই তার কাছে বেশি প্রাধান্য পায়।’

‘জীবন একরকমই থাকবে না, বিশেষ করে ক্রিকেটারদের। পারফরম্যান্স উঠানামা করে এবং ও এমন একটি সময়ে এসেছে যখন কিনা প্রায় শেষের দিকে। যেকোনো সময়ে সে অবসরে চলে যেতে পারে। সেদিক থেকে চিন্তা করে আমরা চাই যতদিন সে খেলতে পারে খেলুক। আর তার সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করবে এই ব্যাপারেও কোনো সন্দেহ নেই। এখন পারফরম্যান্স কী হবে সেটি জানি না, কিন্তু সে যে চেষ্টা করবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ ও হচ্ছে সত্যিকারের একজন যোদ্ধা।’