জাতীয়

শিশুটিকে বাঁচানো যাবে ২০ লাখ টাকা হলেই

টাকার পরিমান ২০ লাখ, অনেকের কাছে পরিমানটা বেশি না হলেও শিশুটির পরিবারের জন্য তা স্বপ্নের মত। বলছিলাম ৪ বছর ৭ মাস বয়সি রাফিয়া আক্তারের কথা।

এই বয়সেই ফুটফুটে শিশুটির দেহে বাসা বেঁধেছে ঘাতকব্যাধি ক্যান্সার! শরীরে যন্ত্রণা নিয়ে এখন সে শুয়ে আছে হাসপাতালের বিছানায়।

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার হুলাশুগঞ্জের করিমপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের সন্তান রাফিয়া। ছোট্ট মেয়ের চিকিৎসা করাতে ধার-কর্জ আর বসতভিটা বিক্রি করে প্রায় ৭ লাখ টাকা খরচ করেছেন। এখন তার খরচ করার আর কিছুই নেই।

শিশুটি বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলের ডি-ব্লকের ৩০৭ নম্বর ইউনিটের ৪ নম্বর বেডে ভর্তি আছে। শিশুটির চিকিৎসা করাতে এখন অন্তত ২০ লাখ টাকার প্রয়োজন।

যোগাযোগ ও সহায়তা পাঠানোর ঠিকানা
মুঠোফোন ও বিকাশ নম্বর : ০১৭৫১-৪৪৬০২৭
ব্যাংক হিসাব : ৭১০১১২১০০০০১৮৮১, হিসাবধারীর নাম মো. রফিকুল ইসলাম, শঠিবাড়ী শাখা, মেঘনা ব্যাংক লিমিটেড।