জাতীয়

স্ত্রী,গণধর্ষণে জড়িত স্বামীকে ধরিয়ে দিল

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের মধ্য বাগ্যা গ্রামে গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনার মামলায় মোট ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে মামলার ৭নং আসামি আবুলকে (৪০) গ্রেফতারে সহায়তা করে স্বয়ং তার স্ত্রী। গতকাল রবিবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন চরজব্বর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল।

এ ব্যাপারে পুলিশ পরিদর্শক বলেন, ‘বিকাল ৫টার দিকে চরজুবলী ইউনিয়নের আটকপালিয়া বাজার এলাকায় আবুলের স্ত্রী স্থানীয়দের সহযোগিতায় আবুলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।’

উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বর ভোটকেন্দ্রে ‘ধানের শীষে’ ভোট দেওয়া নিয়ে বাকবির্তকের জের ধরে দরজা ভেঙে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের মধ্যবাগ্যা গ্রামেভিকটিমের ঘরে প্রবেশ করে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য রুহুল আমিন বাহিনীর সদস্য সহেল, স্বপন, চৌধুরী, বেচুসহ ১০ জন।

এরপর তারা ঘরে ভাঙচুর করে ভিকটিমের স্বামী সিরাজ উদ্দিনকে মারধর ও ৪ সন্তানকে বেঁধে রেখে ভিকটিমকে উঠানে নিয়ে কাপড় দিয়ে মুখ বেঁধে পালাক্রমে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা করে। এর পরে এই ঘটনায় ভিকটিমের স্বামী সিরাজ উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।