জাতীয়

ক্যান্সারে আক্রান্ত শাহিনার পাশে মাশরাফি

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি: বর্তমানে বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে ব্যস্ত আছেন মাশরাফ। কিন্তু থেমে নেই নড়াইলের প্রতি তার কর্তব্যবোধ। নির্বাচনে যদিও কোন প্রতিশ্রুতি দেননি নড়াইল এক্সপ্রেস।

তবে তিনি জানেন কথার থেকে মানুষের কাজের গুরুত্ব বেশি। বিপিএলে বল হাতে নিয়েছেন ঠিকই, তবে নড়াইলের প্রতি তার ভালোবাসা ও দ্বায়িত্ব লক্ষণীয়। মাশরাফির নির্বাচনীয় প্রচারণায় মানুষের দ্বারে গিয়ে তাদের সমস্যাসহ নানা জটিলতা উপলব্ধি করেছিল।

নির্বাচনের সময় মাশরাফি ভোট চাইতে গিয়ে সাক্ষাৎ হয় শাহিনা বেগমের সাথে। শাহিনা বেগম উজিরপুরের ইয়াসিন শেখের স্ত্রী। ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করছের শাহিনা।

শাহিনা কাছে ভোট চাইতে গেলে তিনি বলেছিলেন, ‘আমি তো দোয়া করবই, কারণ সে আমার সন্তানের মত। তোমরা আমার জন্য দোয়া করো, আমি তো মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করছি। আমি ক্যান্সারে আক্রান্ত। প্রায় মৃত্যুর পথে বাবা।’

তখন তাকে সান্তনা দিয়ে জেলা গার্লস স্কুলের স্কাউট ইউনিটের উপদলনেতা অহনা মোর্শেদ নিধী বলেন, ‘আপনার কিছু হবে না মা, দেখেন কতগুলো ছেলে মেয়ে আপনার
পাশে। আপনি মোটেই ভেঙ্গে পড়বেন না। আমরা আপনাকে সুস্থ করে তোলার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করবো।’

এদিকে, শাহিনা বেগমের চিকিৎসার যাবতীয় খরচ ও ব্যাবস্থার দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন নড়াইল পুত্র মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাশরাফীর তত্ত্বাবধানে ‘টিম-তারুন্য- ১০০’ এর রাসেল বিল্লা।

রাসেল জানান, ক্যান্সার থেকে শাহিনা বেগমকে নিষ্কৃতি দিতে যা যা করার প্রয়োজন তাই করবেন নড়াইল এক্সপ্রেস। প্রয়োজনে দেশের বাহিরে উন্নততর চিকিৎসার জন্য তাকে সেবা প্রদান করা হবে।

নির্বাচন শেষে বিপিএলের জন্য ঢাকায় ব্যস্ত সময় পার করছেন মাশরাফি। তবে নড়াইলে অনুপস্থিত থেকেও তার নির্দেশে ও তত্ত্বাবধানে জেলায় চলছে উন্নয়ন ভিত্তিক ও কল্যাণমুখী কার্যক্রম। সার্বিক-সমষ্টিগত বিষয় থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের সমস্যার প্রতি মাশরাফির রয়েছে গভীর নজরদারি।