Notunshokal.com
জাতীয়

ছেলের বউ বানানোর কথা বলে যুবতীকে আটকে রেখে ধর্ষণ

আনয়ার হোসেন, টাঙ্গাইল উপজেলা প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের সখীপুরে দশম শ্রেনীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে ছেলের বউ বানানোর প্রলোভন দেখিয়ে আটকে রেখে মজিবর রহমান (৪৫) নামের এক লম্পটের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় গতকাল রবিবার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদি হয়ে অভিযুক্ত মজিবর (৪২) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমসহ ৪জনের বিরুদ্ধে সখীপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে রাতেই অভিযুক্ত মজিবর ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আজ সোমবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত মজিবর রহমানকে ৫দিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে অভাবের তাড়নায় ৫ বছর পূর্বে ঐ ছাত্রীর বাবা আলিম উদ্দিন তার আদি বাড়ি কালিহাতি হতে চলে এসে ঐ গ্রামে আত্বীয়-স্বজনদের সহায়তায় স্থানীয় ভাবে বসবাস শুরু করে। পরে তার ২ ছেলেকে স্থানীয় হাফেজিয়া ও ১ মেয়েকে স্থানীয় দাখিল মাদ্রসায় ভর্তি করান। কিন্তু বছর তিনেক পরে বয়স হওয়ায় ঐ ছাত্রীর বাবা তার উপার্জন সক্ষমতা হারিয়ে ফেললে তাদের লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে তার মা দিনমজুরের কাজ শুরু করলে সেই টাকায় চলে তাদের পড়াশোনা ও সংসারের খরচ।

এদিকে তাদের টানাপোড়েনের সংসারের এই অভাব অনটনের সুযোগ নিয়ে লম্পট মজিবর বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে ঐ ছাত্রীকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। কিন্তু তার কু-প্রস্তাবে ঐ ছাত্রী কোনো সাড়া না দেওয়ায় এক পর্যায়ে লম্পট মজিবর তার প্রবাসে থাকা ছেলের বউ বানানোর কথা বলে ঐ ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ১ সপ্তাহ আটকে রেখে ধর্ষণ করে। পরে ঐ ছাত্রীর মা বাদী হয়ে গত রবিবার সখিপুর থানায় মামলা করেন।

এ ব্যাপারে সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমির হোসেন বলেন, ‘সোমবার দুপুরে অভিযুক্ত মজিবরকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও মজিবরের স্ত্রীকেও আদালতে পাঠানো হয়। ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।’

আরও পড়ুন

হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন ফরিদুর রেজা সাগর-ব্রাউনিয়া

Sheikh Anik

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ফের সিঙ্গাপুর যাচ্ছেন

Syed Hasibul

হাজী সেলিম নৌকার টিকেট পেয়ে বাকশক্তি ফিরে পেলেন

Syed Hasibul