খেলাধুলা

বিপিএলের এবারের আসরে সবচেয়ে বড় চমক মুশফিকুর রহিমের চিটাগাং ভাইকিংস

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে চমক দেখিয়েছিল সমুদ্রপাড়ের দল চিটাগাং। ওই বছর বিপিএলে রানারআপ হয় চিটাগাং কিংস। এরপর আর বিপিএলে খুঁজে পাওয়া যায়নি চিটাগাংয়ের দলকে। প্রায় প্রতিটি আসরে প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিয়েছে চিটাগাং। কিন্তু এবার মনে হয় চমক দেখাচ্ছে চিটাগাং ভাইকিংস।

জাতীয় দলের উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের অধিনায়কত্বে মাঝারি মানের দল নিয়ে প্রথম পর্ব শেষে বিপিএলের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে চিটাগাং ভাইকিংস। বিপিএলে এখনো পর্যন্ত চারটি ম্যাচের এর মধ্যে তিনটিতেই জয়লাভ করেছে মুশফিকুর রহিমের দল।

বিপিএলের প্রথম দিনেই শক্তিশালী রংপুর রাইডার্স কে হারিয়ে চমক দেখায় চিটাগাং ভাইকিংস। এরপর সিলেট সিক্সার্স এর কাছে ৫ রানে হারের পর ১৩ জানুয়ারি খুলনা টাইটানস এর বিপক্ষে ম্যাচ সুপার ওভারে জয় লাভ করে চিটাগাং ভাইকিংস। আর গতকাল তামিম ইকবালের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এর বিপক্ষে জয়লাভ করেছে মুশফিকুর রহিমের দল।

বিপিএলে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে সফল মুশফিকুর রহিম। মোটামুটি মাঝারি মানের দল নিয়ে এবার বাজিমাত করছে চিটাগাং ভাইকিংস। দলের বড় তারকা বলতে নিজে মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ শেহজাদ, রবি ফ্রালিনক, ক্যামেরন ডেলপোর্ট।

এছাড়াও জিম্বাবুয়ে এন্ড অল রাউন্ডার সেকেন্দার রাজা, মোসাদ্দেক হোসেন, মোহাম্মদ আশরাফুল, নাঈম হাসান কে নিয়েছে চিটাগাং ভাইকিংস। সেভাবে তারকাখচিত কোন ক্রিকেটার না থাকলেও দলগতভাবে দারুণ পারফরম্যান্স করছে চিটাগাং।

ব্যাট হাতে রান পাচ্ছেন মুশফিকুর রহিম মোহাম্মদ শেহজাদ ক্যামেরন ডেলপোর্ট আরফিন। অন্যদিকে বল হাতে দারুণ অবদান রাখছেন ফ্রাঙ্কলিন খালিদ আহ্মেদ, নাঈম হাসান, আবু জাহেদ রাহি। এক কথায় ছোট দল হিসেবে অসাধারণ খেলছে মুশফিকুর রহিমের দল চিটাগাং ভাইকিংস।