জাতীয়

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন বৈঠক শেষে বিশ্ব ইজতেমা বিষয়ে সিদ্ধান্ত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, নির্ধারিত দিনক্ষণ অনুযায়ী আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি সম্মিলিতভাবে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। তাবলিগ জামাতের মধ্যে যে বিভেদ ছিল তা ইতোমধ্যেই মিটে গেছে। এখন ইজতেমার প্রস্তুতি চলছে।

রবিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ইজতেমার আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, তাদের মধ্যে একটু মতবিরোধ ছিল। তারা ঐক্যমত হয়ে আমাদের কাছে এসেছিলেন। তারপর তাদের মতামত নিয়ে এজতেমার সিদ্ধান্ত হয় আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। এখন পর্যন্ত তা ঠিক আছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ ফেব্রুয়ারি সম্মিলিতভাবে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। এ ব্যাপারে তাবলীগ জামাতের নেতারা সকলেই ঐকমত্যে পৌঁছেছেন। তবে ইজতেমার শেষদিনে কে মোনাজাত পরিচালনা করবেন কিংবা নামাজে কে ইমামতি করবেন ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করতে ফের ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে বিবদমান দুটি পক্ষের দু’জন করে চারজন মুরুব্বি বৈঠকে বসবেন।

অন্য এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেখুন সারা বিশ্বেই তবলীগ জামায়াতের মধ্যে মতোবিরোধ শুরু হয়েছে, আমাদের দেশেও বাদ যায়নি। আমাদের উদ্যেশ্য হচ্ছে তাবলীগ জামায়াত আগের মতোই একসঙ্গে থাকবে এবং এবারের ইজতেমাও একই দিনেই হবে। আমরা সেই প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

এর আগে রবিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের বিষয়ে আলোচনার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়।