অন্যান

প্রথমবারের মতো সংসদ অধিবেশনে মাশরাফি

একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়েছে গত ৩০ জানুয়ারি। তবে চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) নিয়ে ব্যস্ত থাকায় অধিবেশন যোগ দিতে পারেননি নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। শেষ পর্যন্ত তিন কার্যদিবস পর অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন নব নির্বাচিত এই সাংসদ।

বিপিএলের ব্যস্ত সূচির মধ্যেও মঙ্গলবার একাদশ জাতীয় সংসদ অধিবেশনে যোগ দেন মাশরাফি। এদিন বিকাল ৫টার দিকে সংসদে প্রবেশ করেন ডানহাতি এই পেসার। এ সময় মাশরাফির সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি ও কিশোরগঞ্জ-৬ আসনের সাংসদ নাজমুল হাসান পাপন।

এর আগে সাড়ে চারটার দিকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়। মাশরাফি যখন সংসদ কক্ষে প্রবেশ করেন তখন মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্ব চলছিল।

বিকাল ৫টার দিকে সংসদে প্রবেশ করেন নব নির্বাচিত এই সাংসদ। ছবি: সংগৃহীত

অধিবেশন কক্ষে ঢুকে ট্রেজারি বেঞ্চের (সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পেছনে) ৭নং সারিতে নিজের আসনে বসেন মাশরাফি। কিন্তু বেশিক্ষণ সংসদে থাকেননি তিনি। মাগরিবের নামাজের বিরতির সময় তিনি সংসদ অধিবেশনস্থল ত্যাগ করেন।

৩০ ডিসেম্বর, অনুষ্ঠিত একাদশ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে আড়াই লাখেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে সাংসদ নির্বাচিত হন মাশরাফি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে অংশ নিয়ে দুই লাখ ৭১ হাজার ২১০ ভোট পান তিনি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) এজেডএম চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পান সাত হাজার ৮৮৩ ভোট। চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেন মাশরাফি।