অন্যান

সাকিবের পরিবর্তে আবারো জাতীয় দলে সুযোগ পাচ্ছেন আরাফাত সানি?

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের কারণে বাংলাদেশ জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েন স্পিনার আরাফাত সানি। এরপর নানা বিতর্কিত কারণে জাতীয় দলে আর ফেরা হয়নি এই স্পিনারের। বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে ১৬ টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা এই বাঁহাতি স্পিনার সর্বশেষ ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন ২০১৫ সালে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ বিপিএল এবার রাজশাহী কিংসের হয়ে খেলেছেন আরাফাত সানি। রাজশাহী কিংসের হয়ে এবারের মৌসুমে সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক সুযোগ পেতে পারেন আবার জাতীয় দলে। ১২ ম্যাচে নিয়েছেন ১৬ উইকেট। ইনজুরির কারণে বাংলাদেশ জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

এদিকে সাকিবের চোটে ওয়ানডেতে কিংবা টেস্টে কাউকে দলে নেওয়া হবে কিনা তা এখনও নিশ্চিত হতে পারেনি। ওয়ানডেতে মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাঈম হাসান রয়েছেন। তাই বাড়তি স্পিনার নেওয়ার প্রয়োজন অনুভব করছে না টিম ম্যানেজম্যান্ট। তবে ব্যাটসম্যান হিসেবে ইমরুল কায়েসকে ভাবনায় এনেছিলেন নির্বাচকরা।

তবে টপ অর্ডার এ ব্যাটসম্যানকে বিশ্রাম দিয়েছে বিসিবি চিকিৎসক। তাকে টেস্ট দলে রাখার আভাস দিয়েছেন নির্বাচকরা। আর ওয়ানডেতে যদি কাউকে নেওয়া হয় সেক্ষেত্রে স্পিনার আরাফাত সানী ও তাইজুল ইসলামের নাম উঠছে। তবে শেষ সিদ্ধান্ত নিউজিল্যান্ড থেকেই আসবে বলে ধারণা দিলেন নির্বাচক হাবিবুল বাশার, ‘মাশরাফি আজই দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছে।

কোচের সঙ্গে বসে যদি সিদ্ধান্ত হয় বাড়তি কাউকে লাগবে তাহলে আমরা পাঠাব। কিছু নাম সুপারিশ তো করা আছে। সেখান থেকেই একজনকে পাঠাব। যদি প্রয়োজন না হয় তাহলে টেস্ট দল নিয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে।’