আন্তর্জাতিক

বিমান হামলার পরই জরুরি বৈঠকে মোদী

কাশ্মীরে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর প্রতিশোধের আগুনে জ্বলছে ভারত। এদিকে ১২ দিনের মাথায় সেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বদলা নিল ভারতীয় বিমান বাহিনী। গুঁড়িয়ে দিল পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জইশ-ই-মুহাম্মদ জঙ্গি সংগঠনের কন্ট্রোল রুম।

এরপই আজ ২৬ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার ভোরে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর সকালেই জরুরি বৈঠকে বসলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নয়াদিল্লিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ৭ নম্বর লোককল্যাণ মার্গে ওই বৈঠক চলছে।

এদিকে বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং, অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারামন, বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল-সহ ভারত সরকারের একাধিক শীর্ষ আধিকারিক।

তাছাড়া এর আগে পুলওয়ামায় জঙ্গিহানার পরদিনও প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে এই কমিটি বৈঠকে বসেছিলেন। সেখানে পাকিস্তানকে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

বৈঠকের পর অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি জানিয়েছিলেন, পাকিস্তানের থেকে বিশেষ সুবিধাপ্রাপ্ত দেশের তকমা কেড়ে নেওয়া হয়। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছিলেন, জবাব দেওয়ার জন্য ভারতীয় সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে।