খেলাধুলা

নিউজিল্যান্ড সিরিজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বকাপে ভালো করতে চান রুবেল হোসেন

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ তেমন একটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ জাতীয় দল। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রতিটিতে বাজে ভাবে হেরেছে টাইগাররা। কোন ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারিনি বাংলাদেশ। অথচ এই নিউজিল্যান্ড চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে হারিয়ে সেমিফাইনাল খেলেছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। তবে সব কিছুকেই ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন জাতীয় দলের ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন।

মিরপুরে সোমবার (৪ মার্চ) সাংবাদিকদের তিনি জানান এই অভিজ্ঞতাই তার বিশ্বকাপে কাজে লাগবে। রুবেল বলেন, ‘আমাদের বোলারদের জন্য খুবই ভালো অভিজ্ঞতা। ইংল্যান্ডে আমাদের বিশ্বকাপ খেলতে হবে। আবহাওয়া বলেন, উইকেট বলেন নিউজিল্যান্ডের কাছাকাছি। আমার মনে হয় খুব ভাল হবে। এই ধরনের কন্ডিশনে কিভাবে বোলিং করতে হবে, কিভাবে আবহাওয়ার সাথে খাপ খাওয়াতে হবে, ব্যাটসম্যানদের কিভাবে ব্যাটিং করতে হবে, অনেক কিছুই শেখার আছে।’

যদিও ওয়ানডেতে সিরিজের প্রথম দুটি ম্যাচে খেলেননি রুবেল। শেষ ম্যাচে খেলে ২৮ রানে ১টি উইকেট নিয়েছেন। তবে এখান থেকেও ভাল কিছু শিখতে পেরেছেন বলে জানান তিনি। তার মতে, ‘নিউজিল্যান্ডে আমরা সিরিজটা হেরেছি। তাই ওইখানে কোনো ভালো অভজ্ঞিতা নেই। কিন্তু অনেক কিছু শেখার আছে, ওই ধরনের কন্ডিশনে কিভাবে খেলতে হয়, বোলারদের কিভাবে বোলিং করতে হয়।

নিউজিল্যান্ডে প্রচুর বাতাস থাক। বাতাসের বিপক্ষে বোলিং করাটা খুব কঠিন। বাংলাদেশে সাধারণত এতজোরে বাতাস হয় না। তো বাতাসের সঙ্গে কিভাবে বোলিং করতে হবে এটা খাপ খাওয়ানোর ব্যাপার আছ। তারপর ধরেন আমাদের উইকেটগুলো ফ্ল্যাট হয় ওদের উইকেটগুলো সুন্দর স্পোর্টিং হয়ে থাকে। আপনি যে লাইনেই বল করেন না কেন হাইটটা সুন্দর হয়। যে যত তাড়াতাড়ি ওই ধরনের কন্ডিশনে খাপ খাওয়াতে পারবে সে ততো ভাল করবে।’

ওয়ানডে সিরিজ শেষে প্রথম টেস্টেও হেরেছে বাংলাদেশ। তবে তামিম, সৌম্য, মাহমুউল্লাহ দেখা পেয়েছেন সেঞ্চুরির। তাই বোঝাই যাচ্ছে চাইলেই ব্যাট করা সম্ভব। এখন দেখার বিষয় বাকি দুই টেস্টে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা কেমন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারে।